২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

প্রতিদিন ওমরাহ পালন করবেন ৭০ হাজার মুসল্লি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : পবিত্র মসজিদুল হারামে প্রতিদিনের ওমরাহ পালনকারীর সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে প্রতিদিন ৭০ হাজার ওমরাহ যাত্রীর প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সৌদির পবিত্র দুই মসজিদ পরিচালনা পর্ষদ।

করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র টিকা নেওয়া মুসল্লিদের মসজিদুল হারামে প্রবেশের অনুমোদন দেওয়া হয়। পবিত্র দুই মসজিদ পরিচালনা পর্ষদের প্রধান শায়খ ড. আবদুর রহমান আল সুদাইনে তত্ত্বাবধানে ওমরাহযাত্রীদের সংখ্যা বৃদ্ধি কার্যক্রম শেষ হয়।

করোনা সংক্রমণ রোধে দীর্ঘ ১৮ মাস বিদেশি ওমরাহ যাত্রীদের আগমন সাময়িক স্থগিত থাকে। এর পর গত ১৫ আগস্ট থেকে শুধুমাত্র টিকা নেওয়া বিদেশি মুসল্লিদের সৌদি আগমন শুরু হয়। তখন থেকে প্রতিদিন ৬০ হাজার মুসল্লি ওমরাহ পালন করেন। এখন তা বাড়িয়ে ৭০ হাজার করা হয়।

পবিত্র দুই মসজিদের পরিচালনা পর্ষদের মুখপাত্র হানি বিন হোসনি হায়দার বলেন, পবিত্র মসজিদে হারামে ওমরাহ বা নামাজ আদায়ে আসা মুসল্লিদের সতর্কতামূলক সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। করোনা সংক্রমণ রোধে মসজিদে হারামে থার্মাল ক্যামেরা, জীবাণুমুক্তকরণ ব্যবস্থা, ও জীবাণুমুক্ত রাখতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন অত্যাধুনিক ১১ টি রোবট, ২০টি বায়ো কেয়ার রোবট ও ৫০০ টি স্টেরিজেশন পাম্প ব্যবহৃত হয়। এছাড়াও ওমরাহ যাত্রীদের জন্য ৫০০ টি ইলেকট্রনিক সাবান সরবরাহকারী, এবং ২৫০টি ফ্যান বসানো হয়।

হায়দার আরো জানান, পরিচালনা পর্ষদ জমজম পানি বিতরণের সংখ্যা বাড়িয়েছে। ওমরাহ যাত্রী ও মুসল্লিদের মধ্যে প্রতিদিন তিন লাখ লিটার জমজম পানির বোতল বিতরণ করা হয়। এছাড়াও মসজিদ হারাম চত্বরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরআন হিফজের পাঠদান পর্ব ও ধর্মীয় আলোচনা অনুষ্ঠান পুনরায় চালু হয়।

মসজিদে হারাম কর্তৃপক্ষ বিশ্বের ১০টি ভাষায় অনুবাদ কার্যক্রম চালু হয়। ওমরাহযাত্রীদের বিভিন্ন সেবা দিতে ইংরেজি, তার্কিশ, উর্দু, পার্সিয়ান, ফ্রেঞ্চ, রুশ, মালাই, বাংলা, চাইনিজ ও হাসুয়া ভাষায় অনুবাদ কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com