প্রতি ঘণ্টায় ৫ মিনিট হাঁটলেই মিলবে সুস্থতা

প্রতি ঘণ্টায় ৫ মিনিট হাঁটলেই মিলবে সুস্থতা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বর্তমানে সবাই কমবেশি কর্মব্যস্ত সময় কাটান। যারা অফিসে ডেস্কে বসে কাজ করেন তাদের ক্ষেত্রে মেদ-ভুঁড়ির সমস্যা বেড়ে যায়। এর কারণ হলো একটানা দীর্ঘক্ষণ চেয়ারে বসে থাকার দরুন একদিকে যেমন ওজন বাড়ে, আবার অন্যদিকে কোমর বা পিঠে ব্যথার ঝুঁকি বেড়ে যায়। এ কারণে চিকিৎসকরা দীর্ঘক্ষণ বসে বসে কাজ করার ক্ষেত্রে মাঝে মধ্যেই হাঁটাচলা করার পরামর্শ দেন। ফিটনেস বিশেষজ্ঞদের দাবি, প্রতি ঘণ্টায় মিনিট পাঁচেক হেঁটে দেখতে পারেন।

মেনস জার্নালের তথ্য অনুসারে, যারা অন্তত ৮ ঘণ্টা অফিসে বসে কাজ করেন তাদের ক্ষেত্রে প্রতি ঘণ্টায় ৫ মিনিটের হাঁটা স্বাস্থ্যের উন্নতিতে বিরাট অবদান রাখতে পারে। এতে কার্ডিওভাস্কুলার রোগের ঝুঁকি কমে। মেডিসিন অ্যান্ড সায়েন্স ইন স্পোর্টস অ্যান্ড এক্সারসাইজ জার্নালের আরও এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, একটা ঘণ্টাখানেক বসে থাকার কারণে শরীরে যে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে তা কাটাতে ২-৫ মিনিটের হাঁটাই যথেষ্ট হতে পারে।

২০১৬ সালের আরও এক গবেষণায় জানা যায়, ঘন ঘন হাঁটা মেজাজ উন্নত করে, শক্তি বাড়ায়, খাওয়ার লোভ কমায় ও সারাদিনের ক্লান্তি অনুভূতি কমাতে সাহায্য করে। তাই কাজের ফাঁকে ফাঁকে অন্ত ৫ মিনিট করে হাঁটার অভ্যাস করা জরুরি। এক্ষেত্রে নিজের বসার জায়গার আশপাশেই সময় ধরে হাঁটতে থাকুন। আর এতেই মিলবে শারীরিক সুস্থতা। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক প্রতি ঘণ্টায় অন্তত ৫ মিনিট করে হাঁটলে-

১. একটানা বসে কাজ করলে কম দিনেই শরীরের বিভিন্ন স্থান যেমন- কোমর, পিঠ, ঘাড়, পা এমনকি হাতেও ব্যথা হওয়ার প্রবণতা বাড়ে। মূলত এক ভঙ্গিতে অনেকটা সময় কাটালে এই সমস্যা হতে পারে। এজন্য কাজের ফাঁকে অন্তত ৫ মিনিট হাঁটলে ব্যথা হওয়ার ঝুঁকি কমবে।

২. কয়েক মিনিট হাঁটাহাঁটি করলেও কিছুটা ক্যালোরি ঝরে। অনেকেই সকালে ঘুম থেকে উঠে ব্যায়াম করার সুযোগ পান না। তবে চাইলে কাজের ফাঁকে প্রতি ঘণ্টায় এই পাঁচ মিনিট মন দিয়ে হাঁটলে কিংবা সিঁড়ি ভাঙলে সহজেই ঝরতে পারে ওজন।

৩. এমনকি প্রতি ঘণ্টায় ৫ মিনিটের এই হাঁটাহাঁটি হৃদযন্ত্র ভালো রাখতেও দারুন উপকারী। কিছুক্ষণ পরপর হাঁটাহাঁটি করলে রক্ত চলাচলও স্বাভাবিক থাকে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে।

  • সূত্র: হেলথ ডাইজেস্ট

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *