২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৪ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ফের এয়ার ইন্ডিয়ার মালিকানা পেলো টাটা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ১৯৩২ সালে ভারত স্বাধীন হওয়ার আগে টাটা গ্রুপ এয়ার ইন্ডিয়াকে কিনে নেয়। তখন তার নাম ছিল টাটা এয়ারলাইন্স। এরপর ১৯৫৩ সালে এয়ার ইন্ডিয়া রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থায় পরিণত হয়। শুক্রবার প্রায় ১৮ হাজার কোটি টাকায় ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থাটিকে কিনে নিয়েছে টাটা গ্রুপ।

কয়েক বছর ধরে লোকসানের কারণে দেনায় জর্জরিত এয়ার ইন্ডিয়া। এ থেকে উত্তরণের জন্য ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সংস্থাটি বিলগ্নিকরণ খাতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। গত সপ্তাহের শুরুতে এয়ার ইন্ডিয়ার দরপত্র মূল্যায়ন শুরু করে সরকার।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, নিলামে টাটা গ্রুপের পর দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন স্পাইসজেটের প্রধান অজয় সিং। তাদের দরপত্র ছিল প্রায় ১৫ হাজার ১০০ কোটি টাকা।

দেনায় জর্জরিত এয়ার ইন্ডিয়ার মোট ১২৭টি উড়োজাহাজ রয়েছে। এয়ার ইন্ডিয়া বর্তমানে ৪২টি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে যায়। নতুন করে মালিকানা পাওয়ায় টাটা গ্রুপ ভারতে মোট চার হাজার ৪০০টি অভ্যন্তরীণ এবং এক হাজার ৮০০টি আন্তর্জাতিক অবতরণ ও পার্কিং স্লটের পাশাপাশি বিদেশি বিমানবন্দরে ৯০০ স্লটের নিয়ন্ত্রণ পাবে তারা।

এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের চাকরি এক বছরের জন্য নিশ্চিত। এরপর যেসব কর্মীকে টাটা গ্রুপ রাখবে না তাদের ভলান্টারি রিটায়ারমেন্টের সুযোগ দেওয়া হবে। এছাড়াও সবাই পিএফ, গ্র্যাচুইটি ও মেডিকেলের সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

সরকার এয়ার ইন্ডিয়ায় তার সম্পূর্ণ অংশীদারত্ব বিক্রি করছে। বেসামরিক বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে টাটা গ্রুপ নতুন নয়। এয়ারএশিয়া ইন্ডিয়াতে প্রায় ৮৪ শতাংশ ও ভিস্তারায় ৫১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে টাটা গ্রুপের। ফলে এয়ার ইন্ডিয়া যে বেশ অভিজ্ঞ হাতেই যাচ্ছে তা সহজেই বলা যায়।

ভারত সরকারের বিলগ্নিকরণ দপ্তরের সচিব বলেন, হস্তান্তরের পর মোট ৪৬ হাজার ২৬২ কোটি টাকার ঋণ থাকবে এয়ার ইন্ডিয়ার। এই ঋণ এয়ার ইন্ডিয়া অ্যাসেট হোল্ডিং লিমিটেডের (এআইএএইচএল) নামে হবে। চলতি বছর আগস্টের শেষে এয়ার ইন্ডিয়ার মোট ঋণ ছিল ৬৫ হাজার ৫৬২ কোটি টাকা।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com