বন্যার্তদের পুনর্বাসনে বাংলাদেশকে ২৩০ মিলিয়ন ডলার দেবে এডিবি

বন্যার্তদের পুনর্বাসনে বাংলাদেশকে ২৩০ মিলিয়ন ডলার দেবে এডিবি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ২০২২ সালের মে-জুন মাসে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলোতে পুনর্বাসন ও পুনর্গঠন প্রচেষ্টায় সহায়তা করার জন্য ২৩০ মিলিয়ন ডলার জরুরি সহায়তা ঋণের চুক্তি স্বাক্ষর এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) ও বাংলাদেশ সরকার।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ও এডিবির পক্ষে যথাক্রমে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব শরিফা খান ও এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিনটিং চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

২০২২ সালের মে-জুন মাসে বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে রেকর্ড বৃষ্টিপাতের কারণে ব্যাপক বন্যার সৃষ্টি হয়। এতে নিম্নাঞ্চলীয় হাওর অঞ্চলে ৭.২ মিলিয়ন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এই প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, মৌলভীবাজার, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর, সুনামগঞ্জ ও সিলেটের ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা দেওয়া হবে।

ডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিনটিং বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার জন্য বাংলাদেশ তার সক্ষমতাকে ক্রমবর্ধমানভাবে উন্নত করার জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে, যার মধ্যে একটি অভিযোজন পরিকল্পনা রয়েছে। যা সারাদেশে ১১টি জলবায়ু-চাপগ্রস্ত অঞ্চলে প্রধান হস্তক্ষেপ চিহ্নিত করে।

তিনি আরও বলেন, এই প্রকল্পটি সরকারের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করবে ও ক্ষতিগ্রস্ত অবকাঠামো পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করবে ও জীবনযাত্রার উন্নতি করবে।

প্রকল্পটি ৭৫৭ কিলোমিটার গ্রামীণ রাস্তা ও সংশ্লিষ্ট কালভার্ট, সেতুসহ ৩৪ কিলোমিটার রেলপথ, ১১,৯০০টি নলকূপ পুনর্গঠন ও পুনর্বাসন এবং ১০০,০০০ গাছ রোপণসহ ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর পরিবহন কাঠামো পুনর্বাসন ও পুনর্গঠন করবে।

এছাড়া ৭৯,২৩৩ হেক্টর জমিতে বন্যার ঝুঁকি কমানোর প্রকল্প বাস্তবায়ন, ১০,০০০ হেক্টর জমিতে জলবায়ু-সহনশীল সেচ অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশেষ করে বয়স্ক, নারী, শিশু এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য নিরাপত্তা এতে অন্তর্ভুক্ত হবে।

এটি নারীদের প্রয়োজনের জন্য বানানো ১০০টি মোবাইল টয়লেট স্থাপন করবে ও জলবায়ু-সহনশীল পানি, স্যানিটেশন ও স্বাস্থ্যবিধি সুবিধাগুলোকে একীভূত করে স্যানিটেশন উন্নত করবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *