২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

বন্যায় আসাম-মেঘালয়ে মৃত্যু বেড়ে ৪২

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বন্যা ও ভূমিধসে ভারতের উত্তরপূর্বের দুই রাজ্য আসাম ও মেঘালয়ে মৃত্যু বেড়ে ৪২ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন ৩২টি জেলার প্রায় ৩০ লাখ মানুষ। দেড় লাখ মানুষ ৫০০টি রিলিফ সেন্টারে আশ্রয় নিয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ভারী বৃষ্টিতে বন্যার কবলে পড়েছে ভারতের পূর্বাঞ্চল। টানা বৃষ্টি হয়েছে ত্রিপুরায়ও। রাজ্যের রাজধানী আগরতলায় গত ৬০ বছরের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া আসামে প্রায় ৩ হাজার গ্রাম বন্যার কবলে পড়েছে। তলিয়ে গেছে ৪৩ হাজার হেক্টর ফসলি জমি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাঁধ, কালভার্ট ও রাস্তাঘাট।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, শনিবার (১৮ জুন) ১৪৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ।

এদিকে, মেঘালয়ের মৌসিনরাম ও চেরাপুঞ্জিতে ১৯৪০ সালের পর থেকে রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে। বন্যায় মৃত্যু হওয়া ব্যক্তিদের পরিবারকে ৪ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা।

ভারতের উত্তরপূর্ব এ রাজ্যের হোজাই জেলায় বন্যার্তদের বহন করা একটি নৌকা ডুবে যাওয়ার পর ২১ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও এখনও তিন শিশুর খোঁজ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে খোঁজখবর নিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মাকে ফোন করেছেন এবং তিনি কেন্দ্র থেকে সব ধরনের সহায়তা দেয়ারও আশ্বাস দিয়েছেন।

বন্যা ও ভূমিধসের কারণে আটকা পড়াদের জন্য আসাম সরকার গোহাটি ও শিলচরের মধ্যে বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে।

এদিকে, অরুণাচল প্রদেশেও বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত সুবানসিরি নদীর পানিতে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য নির্মাণাধীন একটি বাঁধ তলিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা পিটিআই।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com