৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

বিদগ্ধ আলেম মুফতী ফয়জুল্লাহ আমানের কীর্তি

• আমিনুল ইসলাম কাসেমী

বিদগ্ধ আলেম মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান। রাজধানী ঢাকার জামিয়া ইকরার মুহাদ্দিস। খ্যাতিমান লেখক ও অনুবাদক। সম্প্রতি তিনি এমন এক কীর্তি গড়েছেন, যেটা প্রশংসার দাবি রাখে। ব্রিটিশ বিরোধি স্বাধীনতা আন্দোলনের অনন্য সিপাহসালার, শাইখুল আরব ওয়াল আজম,  সাইয়্যিদ হুসাইন আহমদ মাদানী (রহ.)-এর আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘নকশে হায়াত’  অনুবাদ করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। এতো বড় কাজ সম্পাদনের হিম্মত এতো দীর্ঘকালেও কেউ দেখাতে সক্ষম হননি। কিন্তু মুফতি ফয়জুল্লাহ আমানের মত একজন তরুন আলেম ইতিহাস গড়লেন। বলা যায় তাঁর দ্বারা এক ‘অসাধ্য’ সাধন হয়েছে।

কুতবুল আলম সাইয়্যেদ হুসাইন আহমাদ মাদানী ছিলেন ইতিহাসের কালজয়ী এক মহাপুরুষ। উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন ও স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়ক। সংগ্রাম-সাধনায় কেটেছিল তাঁর জীবন। বিশেষ করে দোর্দণ্ড প্রতাপশালী ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে সিনা টান করে তিনি লড়েছিলেন। তাঁর বজ্রহুংকারে কেঁপে ওঠেছিল ব্রিটিশদের মসনদ। যে কারণে জালিম শাহীর জিন্দানখানায় তাঁকে কাটাতে হয়েছে বছরের বছর। এমনকি মাল্টার জেলখানাতে প্রিয় উস্তাদ শাইখুল হিন্দের সাথে ছিলেন প্রায় চার বছর। মাল্টা থেকে মুক্তি পাওয়ার পরেও ভারতের বিভিন্ন জেলখানাতে তাঁর বন্দী থাকতে হয়।  মানে তাঁর জীবনটা ছিল কঠিন সংগ্রাম – সাধনায়। বিরাম-বিশ্রামহীন ছিল তাঁর জীবনের পথ চলা।

হযরত মাদানী (রহ.) তাঁর জীবনের শেষ প্রান্তে এসে এক আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ রচনা করেন। যার নাম ‘নকশে হায়াত’।  অসাধারণ সাড়া জাগানো  এক সাহিত্যকর্ম এই নকশে হায়াত। উনিশ চুয়াল্লিশ থেকে উনিশ তেপ্পান্ন সাল- দশ বছরে জীবনের অভিজ্ঞতা রচনা করেন। তাতে তুলে ধরেন অনেক অজানা ইতিহাস। অতীত সময়কে অনেক আবেগ- বিশ্বস্ততার সাথে ফুটিয়ে তোলেন বইয়ের পাতায়।

তিনি ছিলেন তাঁর সময়ের বিখ্যাত রাজনৈতিক ও আধ্যাত্মিক ব্যক্তিত্ব। বিশ্বব্যাপি ছিল তাঁর খ্যাতি। তৎকালিন বিশ্ববিখ্যাত রাজনীতিবিদগণ তাঁকে পরম শ্রদ্ধাভরে দেখতেন। সর্বস্তরের মানুষকে নিয়ে তাঁর ফিকির ও কর্মসূচি ছিল। পুরো ভারত উপমহাদেশের মানুষকে নিয়ে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের স্বপ্ন দেখতেন তিনি। তার জন্য জীবনের পদেপদে নানান প্রতিবন্ধকতা এবং অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়।  তাছাড়া ইলমে তাসাউফ এবং ইলমে হাদীসের ময়দানে মকুটহীন সম্রাট ছিলেন তিনি। দারুল উলুম দেওবন্দে দীর্ঘ ত্রিশ বছর এবং মদীনা মুনাওওরাতে রওজায়ে আতহারের ঠিক পাশে বসে আঠার বছর হাদীসে নববীর দরস প্রদান করেছেন।

রাজনীতি ও অধ্যাপনার পাশাপাশি তিনি ছিলেন ফকীহুন নফস রশিদ আহমাদ গাঙ্গুহী এর  আজাল্লে দরজার খলীফা। এ ময়দানেও ছিল তাঁর সীমাহীন বিচরণ। এ প্রসঙ্গে একটি সুক্ষ তথ্য হচ্ছে, হযরত মাদানী (রহ.); হযরত গাঙ্গুহী (রহ.) এর নিকট বায়আত হলেও তাসাউফ-আধ্যাত্মিকতার সবক গ্রহণ করেছেন স্বয়ং হযরত গাঙ্গুহী (রহ.)-এর পীর ও মুর্শিদ হযরত হাজী ইমদাদুল্লাহ মুহাজিরে মক্কী (রহ.)-এর নিকট।

মাওলানা মাদানী তাঁর আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থে সবকিছু তুলে ধরেছেন। অত্যন্ত আবেগ মিশ্রিত রচনা, যার পাতায় পাতায় রয়েছে পাঠকদের জন্য খোরাক।

হযরত মাদানী (রহ.)-এর সেই আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘নকশে হায়াত’ বাংলায় অনুবাদ করে পাঠকদের হাতে তুলে দিয়েছেন মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান, যিনি নিজেও দারুল উলুম দেওবন্দের এক সূর্যসন্তান। আবার তিনি এমন কিছু ব্যক্তির সোহবত পেয়েছেন যারা জগৎসেরা। হযরত মাদানী (রহ.)-এর খাস শাগরেদ আল্লামা কাজী মু’তাসিম বিল্লাহ (রহ)-এর সাহচার্যে তিনি ছিলেন দীর্ঘদিন। বর্তমানে তিনি ফেদায়ে মিল্লাত সাইয়্যেদ আসআদ মাদানী (রহ.)-এর খলীফা আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ এর সাহচার্যে আছেন। এসব বরেণ্য ব্যক্তিদের আশির্বাদে তিনি এগিয়ে চলেছেন নিরন্তর।

“অপর পক্ষ বলছেন, দেওবন্দ কেবল মাদ্রাসার চার দেওয়ালের নাম নয়। দেওবন্দ একটা বিপ্লব। ১৮৫৭ সালের সিপাহি বিদ্রোহ ব্যর্থ হবার পর বিকল্প হিসেবে দারুল উলুম দেওবন্দ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। কাজেই দারুল উলুম দেওবন্দের একটি রাজনৈতিক লক্ষ্যও ছিল”
– পড়ুন মুফতী ফয়জুল্লাহ আমান রচিত ‘দেওবন্দ ও রাজনীতি’

বইটি অনুবাদের ক্ষেত্রে মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান যথেষ্ট বিশ্বস্ততা দেখিয়েছেন। ভাষার সৌন্দর্য, বর্ণনা, উপস্থাপনাতে তিনি দিয়েছেন দক্ষ কলম সৈনিকের পরিচয়। বইটি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের খ্যাতনামা প্রকাশনা ‘ঐতিহ্য’।

দেশের সব লাইব্রেরিতে বর্তমানে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। এমন মহান এক কর্মবীর সাধকের জীবনী আমাদের সবার ঘরে ঘরে থাকা উচিৎ। আমি বইটির বহুল প্রচার এবং সফলতা কামনা করি।

লেখকঃ শিক্ষক ও কলামিষ্ট

বইটি সংগ্রহ করতে ক্লিক করুন :

ওয়াফি লাই : ২ খণ্ড একত্রে

ইসলামিক বইঘর : ২ খণ্ড একত্রে

রকমারি : প্রথম খণ্ডদ্বিতীয় খণ্ড

প্রথমা : প্রথম খণ্ডদ্বিতীয় খণ্ড

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com