৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ , ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৬ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব থেকে বের হয়েছে তাবলিগের ২ হাজার ৭৭৪ জামাত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগতীরে লাখো মানুষের অংশগ্রহণে রোববার (১৫ জানুয়ারি) আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। মোনাজাত শেষে বিশ্ব ইজতেমা থেকে বের হয়েছে ২৭৭৪টি জামাত। এর মধ্যে দেশি জামাত রয়েছে ২৪৮০টি। বিদেশি ২৯৪টি এবং মাস্তুরাত জামাত ১৬টি।

বিশ্ব ইজতেমার শেষ দিনে আখেরি মোনাজাতের আগে হেদায়েতি বয়ান করেন মাওলানা মাওলানা ইবরাহিম দেওলা, বয়ানের অনুবাদ করেছেন কাকরাইলের শূরা সদস্য মাওলানা কারী জোবায়ের আহমাদ।

শেষ দিনের হেদায়েতি বয়ানে তাবলিগের ৬ উসুল নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং যারা আল্লাহর রাস্তায় চিল্লার জন্য বের হবেন তারা কিভাবে কাজ করবেন এ নিয়ে দিকনির্দেশনাপূর্ণ আলোচনা হয়েছে। এছাড়া যারা ইজতেমা ময়দান থেকে নিজ বাড়ি বা এলাকায় ফিরবেন তাদেরকে তাবলিগের কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকার বিষয়ে ‍গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

শেষ দিনের হেদায়েতি বয়ান শেষে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা হয়েছে। মোনাজাতে বিশ্বশান্তি, কল্যাণ কামনা, মুসলমানদের ঈমান হেফাজত, পারস্পারিক ভ্রাতৃত্ব, উন্নত আখলাক গড়ার জন্য বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

আখেরি মোনাজাতে আল্লাহর কাছে গুনাহ মাফের জন্য তওবা, সারা দুনিয়ার মুসলমান নর-নারীর গুনাহ মাফ, ঈমানের হাকিকত, ঈমানের জামাত, ঈমানি ভয়, ঈমানি মৃত্যু, ঈমানি ভ্রাতৃত্ব মজবুত করা, ঈমানি রিজিক, ঈমানের সঙ্গে কবরে ও আখেরাতে পুনরুত্থিত হওয়ার তাওফিক চাওয়া হয়।

বিশ্ব মুসলমানদের জানমালের হেফাজত, মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করা, ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র থেকে ঈমানদার মুসলমানদের রক্ষা করা, বাতিল শক্তির সমস্ত চক্রান্ত-ষড়যন্ত্রকে উৎখাত-নস্যাত করার মালিক আল্লাহ। হকের রাজ প্রতিষ্ঠা বাতিল শক্তিকে চিরতরে নস্যাৎ করে দিতে আল্লাহর কাছে বিশেষ সাহায্য কামনা করা হয়। মোনাজাতে বিশ্ব শান্তি ও কল্যাণের পাশাপাশি আত্মশুদ্ধির জন্য আল্লাহর সাহায্য কামনা করা হয়।

প্রসঙ্গত, আগামী ২০ থেকে ২৩ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

সূত্র : ঢাকা পোস্ট

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com