১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

বিষাক্ত মদপান : আসামে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৫০ জনে

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ভারতের উত্তর-পূর্ব সীমান্তে অবস্থিত রাজ্য আসামে বিষাক্ত মদপানে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৫০ জনে দাঁড়িয়েছে। এই সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। যাদের মধ্যে গোলা ঘাট জেলাতেই ৩৯ চা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় স্বাস্থ্য দপ্তরের বরাতে এ কথা জানা গেছে।

স্বাস্থ্য দপ্তর বলছে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন অন্তত ২শ’ জন। এদের বেশিরভাগেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক। রাজ্য কর্তৃপক্ষের দেওয়া তথ্যের বরাতে করা প্রতিবেদনে ভেজাল মদ পান করে এই শ্রমিকদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

পুলিশ বলছে, হতাহতদের বেশিরভাগই চা-বাগানের শ্রমিক। বৃহস্পতিবার রাতে প্রথম ঘটনাটি ঘটে গোলাঘাটের সালমোরা চা-বাগানে অন্যটি জোড়হাটের তিতাবরের প্রত্যন্ত গ্রামে। স্থানীয়ভাবে বানানো মদ পান করেছিলেন ওই শ্রমিকেরা।

পুলিশি প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আসামের রাজধানী গুয়াহাটি থেকে প্রায় ৩১০ কিলোমিটার দূরবর্তী এলাকায় সাপ্তাহিক মজুরি পাওয়ার পর চা শ্রমিকরা সেই বিষাক্ত মদ পান করেন। মূলত এরপরই তারা ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে অন্তত সাত নারী শ্রমিকও রয়েছেন।

রাজ্য কর্তৃপক্ষের মতে, এদিন সন্ধ্যায় সালমারা চা বাগানের শ্রমিকরা মদ পান করেন। আর এর পরপরই চার নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়। এতে পরবর্তী ১২ ঘণ্টায়, আরও অন্তত আট শ্রমিকের মৃত্যু হয়। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ১৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এ ঘটনার পরপরই চা বাগানটির পার্শ্ববর্তী জুগিবাড়ি এলাকা থেকে সেই অবৈধ মদ প্রস্ততকারক ফ্যাক্টরির মালিকদের আটক করা হয়। এতে আটককৃত অভিযুক্তদের নাম- ইন্দু কল্প বোরদোলাই ও দেবা বোরা।

অপরদিকে ডেপুটি পুলিশ সুপার পার্থ প্রতিম শৈকিয়া বলছেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে সাতজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছি। এতে জড়িত থাকার দায়ে আরও বেশ কয়েকজনকে আটকের জন্য অভিযান পরিচালনা করছে আমাদের কর্মকর্তারা। তাছাড়া এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার লিটার দেশি মদ জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, রাজ্যটিতে প্রায়ই এমন ভেজাল মদ পান করে স্থানীয়দের প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়। এর আগে গত দুই সপ্তাহ আগে দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় এই জেলাটিতেই এসব মদপানে পায় শতাধিক লোকের অসুস্থ হয়ে মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছিল।

জানা গেছে আসামের রাজধানী গুয়াহাটি থেকে ৩১০ কিলোমিটার দূরে গোলাঘাট জেলার চা বাগানের শতাধিক শ্রমিক গত বৃহস্পতিবার সাপ্তাহিক বেতন পাওয়ার পর স্থানীয়ভাবে তৈরি মদপানে অসুস্থ হয়ে পড়েন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com