৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১১ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

বৃষ্টি বেড়ে কমতে পারে গরম

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : সারাদেশে বৃষ্টি একেবারেই কমে গেছে। বুধবার থেকে দেশের চার বিভাগ ও ২ জেলায় শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ। তবে বৃষ্টি বেড়ে তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এরই মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাবে ঝোড়ো হওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় দেশের চারটি সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত জারি করা হয়েছে।

লঘুচাপটি আরও শক্তিশালী হতে পারে। এর প্রভাবে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে বৃষ্টি বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

বুধবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় নীলফামারীর ডিমলায় ৩৫, শ্রীমঙ্গলে ২০, চাঁদপুরে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া ঢাকা ও কুমিল্লায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্য কোথাও বৃষ্টি হয়নি।

বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বেড়ে সৈয়দপুরে দাঁড়িয়েছে ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ঢাকাসহ প্রায় সারাদেশেই গরমে নাভিশ্বাস উঠেছে জনজীবনে। তাপমাত্রার পারদ খুব বেশি ওপরে না উঠলেও অস্বস্তিকর ভ্যাপসা গরমে গত রাতে অনেকে ঘুমাতেও পারেননি। বৃহস্পতিবারও ছুটির দিনে গরমে কষ্ট পাচ্ছেন নগরবাসী।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে। রাজস্থান ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি বর্তমানে দক্ষিণ-পশ্চিম রাজস্থান ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিম বঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণপূর্বাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় (৫১ থেকে ৭৫ শতাংশ এলাকা), রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় (২৬ থেকে ৫০ শতাংশ জায়গায়) এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় (১ থেকে ২৫ শতাংশ জায়গায়) অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলেও জানান তিনি।

গোপালগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলাসহ রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে জানিয়ে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, তাপপ্রবাহ কিছু এলাকায় প্রশমিত হতে পারে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com