১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ভোলার হরতাল প্রত্যাহার করলো বিএনপি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত জেলা ছাত্রদলের সভাপতির মৃত্যুর ঘটনায় ভোলায় ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল দুপুরে প্রত্যাহার করে নিয়েছে কেন্দ্রীয় বিএনপি। সকাল থেকে সেখানে হরতাল চলছিল।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে ভোলা জেলা বিএনপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় হরতাল প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বিএনপির ধারাবাহিক কর্মসূচি চলবে। জনগণের দাবি রাখতেই হরতালের ডাক দেওয়া হয়েছিল। দলীয় কর্মীদের হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। তবে আপাতত জনগণের দুর্ভোগ কমাতে আধাবেলা পর হরতাল প্রত্যাহার করা হলো।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ইঙ্গিত করে গয়েশ্বর বলেন, শোকের মাসে তাদের স্লোগান ছিল ‘কাঁদো বাঙালি কাঁদো’। আর আজকে তারাই পুলিশ দিয়ে স্বেচ্ছাসেবক দল সদস্য ও ছাত্রদল সভাপতিকে হত্যা করে জনগণকে কাঁদিয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডের বিচার হবে। বিএনপির পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন, বিলকিস জাহান শিরিনসহ ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর। এ সময় নিহত নুরে আলমের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এর আগে হরতালের সমর্থনে শহরে দফায় দফায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে বিএনপির কর্মীরা। খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে একত্রিত হন তারা।

এদিকে যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরজুড়ে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

এদিন দুপুর ১টার পর থেকে জেলার সার্বিক পরিস্থিতি শান্ত হতে শুরু করলেও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল। শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ মোতায়েন করা ছিল।

উল্লেখ্য, পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষের ঘটনায় লাইফ সাপোর্টে থাকা ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলমের মৃত্যুর ঘটনায় সকাল-সন্ধা হরতালের ডাক দিয়েছিল জেলা বিএনপি।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com