৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৫শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

মাদরাসার ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণারোপে ক্ষুদ্ধ পাকিস্তানের আলেমরা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিদেশি শক্তির চাপে মাদরাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর সরকার নিয়ন্ত্রণারোপ করছে বলে অভিযোগ করেছে পাকিস্তানের মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাক।

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার অভিযোগ, ব্যক্তিগত অপরাধকে জাতীয় ইস্যু বানিয়ে পাকিস্তান সরকার বিভিন্নভাবে মাদরাসাগুলোর ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করছে।

শীর্ষ আলেমদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া পাকিস্তানের সহ সাধারন সম্পাদক মাওলানা কাজি আবদুর রশিদ এসব অভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, বেফাকুল মাদারিস পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড। এ বোর্ডের অধীনে ২০ হাজার মাদরাসা ও ২৫ লাখ শিক্ষার্থী রয়েছে। পাকিস্তানের শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় এ বিশাল জনগোষ্ঠী ব্যাপক অবদান রাখছে।

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সরকার অযাচিত হস্তক্ষেপ করছে অভিযোগ করে বেফাকের এ মুখপাত্র বলেন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো দেশের শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার ক্ষেত্রে সব সময় সহযোগিতা করে।

কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, সরকার আমাদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে। জঙ্গিবাদের সঙ্গে মাদরাসাগুলোকে সম্পৃক্ত করার অপচেষ্টা চলছে। এভাবে টার্গেট করে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে অভিযুক্ত করা অপরিণামদর্শী কাজ। আমরা মনে করি, কোনো ব্যক্তির ভুলের জন্য পুরো গোষ্ঠীকে দায়ী করা ঠিক নয়

প্রসঙ্গত, পুলওয়ামা হামলার পর আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পাকিস্তান কঠোরভাবে জঙ্গি দমন অভিযান নেমেছে। এর অংশ হিসেবে মার্চের শুরুর দিকে দেশটিতে ১৮২টি সন্দেহভাজন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান (মাদরাসা) দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এসব মাদরাসার কার্যক্রম। পাশাপাশি পাকিস্তান এ বছর ইসলামী সাহায্য সংস্থাগুলোর কার্যক্রমও বন্ধ করছে।

সূত্র: এক্সপ্রেস নিউজ উর্দু

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com