মাদরাসা শিক্ষার্থীদের সুস্বাস্থ্য ও খেলাধুলা

মাদরাসা শিক্ষার্থীদের সুস্বাস্থ্য ও খেলাধুলা

নতুন বছরের প্রত্যাশা । লাবীব আব্দুল্লাহ

মাদরাসা শিক্ষার্থীদের সুস্বাস্থ্য ও খেলাধুলা

সাঁতার, দৌড় ও ঘোড়দৌড়ের কথা বর্ণিত হয়েছে হাদীসে নববীতে৷ সাহাবায়ে কেরাম মসজিদে নববীতে তরবারি নিয়ে মহড়াও দিয়েছেন৷ হাবশীদের সেই খেলার দৃশ্য দেখেছেন হুজরা থেকে মুমিনজননী হাফেযা ও মুহাদ্দিসা আম্মাজান আয়েশা সিদ্দিকা রাজিআল্লাহু আনহা৷ নবীজীর প্রিয়তমা জীবনসাথী৷ নবীজীর মমতাময় কাঁধে কপোল রেখে খেলার দৃশ্য দেখছেন আম্মাজান আয়েশা৷ সহাবায়ে কেরাম রনাঙ্গন থেকে ফেরার পথে কে কার আগে ফিরবেন আপন নীড়ে প্রিয় মদীনা শহরে সেই প্রতিযোগিতাও ঘোড়ার আরোহী হয়ে৷ পূর্ণিমার রাতে আলোভরা রাতে, চান্নিপসর রাতে নবীজী প্রিয়তমা জীবনসাথীর সাথে দৌড় দিয়েছেন৷

সাহাবায়ে কেরাম ছিলেন পরিশ্রমী, স্বাস্থ্যসচেতন, সংগ্রামী, ভিশনারী, দিগদিগন্ত ছুটেছেন ঘোড়ার পীঠে৷ জয় করেছেন দেশের পর দেশ৷ বিশ্বমানচিত্র পাল্টে দিয়েছেন৷ সমুদ্র তীরে দাঁড়িয়ে সমুদ্রে ঘোড়া চালাতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন৷ বন বাদার, জংগল প্রান্তর পাড়ি দিয়ে জয় করেছেন আফ্রিকা মহাদেশ৷ রাতে দরবেশ দিনে অশ্বারোহী সেই সাহাবায়ে কেরামের অনুসারী আজকের তালেবে ইলমদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের কথা ভেবে চিন্তিত হই, লজ্জিত হই, ভাবতে থাকি আমাদের মতো পেটুক, আমাদের মতো ওজনদার শরীরে কী হবে এই জীবন ও জগতে৷

মাদরাসায় নিয়মিত শরীর চর্চা হোক, ওয়ারজিশ ও ব্যায়ম করার আয়োজন থাকুক৷ মাদরাসার নিজস্ব ব্যায়ামাগার কায়েম হোক৷ দেশ জাতি রাষ্ট্র এবং উম্মাহর দরদে আমরা আমাদের শরীরের ফিটনেস ঠিক রাখি৷ ফুরফুরে মন ও মেজাযের জন্য আমরা শরীয়াহ অনুমেদিত খেলায় অংশ নিতে পারি৷ খেলা ব্যায়ামের অংশ৷

ইদানীং আমি গত পনর দিন থেকে ভাত খাই না! বিশ কেজি ওজন কমানোর টার্গেট! ভাত রুটি চিনি সব বন্ধ৷ নিষিদ্ধ৷ শাক সবজি ডিম মাছ গোশত আহার করছি৷ শরীর ঠিক রাখতে আমাকে প্রিয় হাফেয মাওলানা ডাক্টার আব্দুল বারী ভাই উপদেশ, নসীহত করেন, তাকাদা দেন৷ আমি আপাতত মুরিদ হয়ে চলছি এই ভাইয়ের নসীহার৷ দেশে ডাক্টার জাহাঙ্গীর কবীর সাহেবের অনেক মুরীদ!

মাদরাসার উস্তায, ইমাম ও খতীব ও মাদরাসার তালেবে ইলমগন শরীরের প্রতি আরও যত্নশীল হবেন এই প্রত্যাশা৷ এটি বিশেষভাবে বললাম৷ বাঙালি জাতি শরীর ও মনের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ততটা যত্নশীল নয়৷ ভাতখাওয়া জাতি কিছুটা আলস! তবে গ্রামের মেহনতি কৃষক ও মজদুরের শরীর মেদহীন, নির্মেদ৷ শহুরেদের মেদ ও চর্বি বেশী৷ ঘুষেও চর্বি অবশেষে মেদভূরি এবং নানারোগী হয়ে মিষ্টি খেতে মানা! জীবন যৌবন সুস্থতা ধনাঢ্যেকে গনীমত বলেছেন নবীজী৷ এই নিয়ামতের কদর করতে গুরুত্বারোপ করেছেন তিনি হাদীসে৷ ইগতানিম খামছান… বলে তাকিদ দিয়েছেন তিনি৷ জীবন ও যৌবন থেকে বিদায় আরেকটি বছর৷ বিদায় ২০২০ ঈসাব্দ সাল৷ নতুন বছরে স্বপ্ন হোক নতুন৷ শীতের মিষ্টিরোদে জীবন হোক সুখময়, প্রাণবন্ত৷

ঈমানী জীবন, জেহাদছা জেন্দেগী প্রানবন্ত৷ পৃথিবী উদ্বাস্তু শিবির, ক্ষণিকালয়, মুসাফিরখানা৷

জীবনের চলার পথে আমরা মুসাফির, উদ্বাস্তু৷ ওপারের জীবন প্রকৃত জীবন৷ লাহিয়াল হাওয়াওয়ান কুরআনী ভাষায়৷ তবে এই জীবনকে বেকার ও নিষ্ফলা করা নিষেধ৷ সংগ্রামমুখর জীবন দিয়ে বিনির্মাণ করতে হবে ওপারের জীবন৷

লেখক : কলামিস্ট ও মাদরাসা শিক্ষক

Image may contain: 1 person, standing, playing a sport and outdoor

ডেরা, নদীর তীরে, মাদরাসাতুল মাদীনা বগুড়ায় বার্ষিক খেলাধুলা প্রতিযোগিতা২০২০ সাল৷ ৩১ ডিসেম্বর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *