২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৭ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

মিয়ানমারে ৩০ জনকে হত্যা করে লাশ পুড়িয়ে দিয়েছে সেনাবাহিনী

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : মিয়ানমারের কায়াহ রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনী ৩০ জনকে হত্যা করে লাশ পুড়িয়ে দিয়েছে। মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, নিহতদের মধ্যে বয়স্ক নারী পুরষ ও শিশু রয়েছে।

ব্রিটিশ নিউজ এজেন্সি রয়টার্স মানবাধিকার গোষ্ঠী, স্থানীয় গণমাধ্যম ও স্থানীয় বাসিন্দাদের বরাতে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

কারেননি মানবাধিকার গ্রুপ বলছে, শনিবার তারা কায়াহ রাজ্যের হিপরুসো শহরে মো সো গ্রামে মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত মানুষদের পুড়িয়ে দেওয়া লাশ পেয়েছেন। গোষ্ঠীটি এক ফেসবুক পোস্টে এই অমানবিক এবং বর্বর হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা অনির্দিষ্ট সংখ্যক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে হত্যা করেছে। সেনাবাহিনী আরও জানায়, যাদেরকে হত্যা করা হয়েছে তারা সাতটি গাড়িতে ছিলেন এবং সেনাবাহিনী তাদের থামার সংকেত দিলেও তারা থামেননি।

মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো যে ছবি শেয়ার করেছে তাতে ট্রাকে পোড়া লাশের অংশবিশেষ দেখা গেছে।

মিয়ানমারের অন্যতম বড় বিদ্রোহী গোষ্ঠী কারেননি ন্যাশনালিস্ট ডিফেন্স ফোর্স জানিয়েছে, লাশগুলো তাদের সদস্যদের না। তবে তারা জানিয়েছে, দ্বন্দ্ব-সংঘাত থেকে পালিয়ে মানুষ তাদের কাছে আশ্রয় চাচ্ছে।

স্থানীয় এক বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, শুক্রবারের গুলির ঘটনা তিনি শুনেছিলেন। কিন্তু মুহুর্মুহু গুলি চলায় তিনি ঘটনাস্থলে যাননি।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম রয়টার্সকে এই ব্যক্তি বলেন, সকালে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি চারিদিকে পোড়া লাশ। নারী ও শিশুদের পরিধেয় পড়ে ছিল বলেও জানান তিনি।

২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চিকে গ্রেফতার করে ক্ষমতা দখল করে। সেই থেকে মিয়ানমারে টালমাটাল অবস্থা বিরাজ করছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com