৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিলেন লিজ ট্রাস

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : যুক্তরাজ্যে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নতুন প্রধান লিজ ট্রাসকে পরবর্তী সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন রানি এলিজাবেথ। আর তা সাদরে গ্রহণ করেছেন ট্রাস। এর আগে অন্তর্বর্তী সরকারের প্রধান হিসেবে রানির কাছে পদত্যাগের কথা জানান বরিস জনসন। ফলে একাধিক কেলেঙ্কারি মাধ্যমে জনসনের রাজনৈতিক পতনের যে সূচনা হয়েছিল মাস দুয়েক আগে, তার আজ চূড়ান্ত পরিণতি দেখলো বিশ্ব।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) স্কটল্যান্ডে রানির ব্যক্তিগত বাসভবন ব্যালমোরাল প্রাসাদে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন কনজারভেটিভ পার্টির নবনির্বাচিত নেতা লিজ ট্রাস। ইউরোপে যুদ্ধ এবং যুক্তরাজ্যে গুরুতর অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যেই ব্রিটিশ সরকার পরিচালনার ভার নিলেন জনসন জমানার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর আগে, বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন প্রথা অনুযায়ী ব্যালমোরাল প্রাসাদে গিয়ে রানির কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দেন। সেখান থেকে বেরিয়ে এক বক্তৃতায় তিনি করোনা মহামারি মোকাবিলা, ব্রেক্সিট চুক্তিসহ প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে নিজের অর্জনগুলো তুলে ধরেন। তবে যেসব কেলেঙ্কারির জন্য ক্ষমতা হারাতে হলো, সেসব বিষয়ে কোনো কথা বলেননি জনসন।

গত সোমবার ব্রিটিশ সময় বেলা সাড়ে ১১টায় (বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টা) ঘোষণা করা হয় যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম। সাধারণ ভোটারদের বদলে এবারের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে বেছে নিয়েছেন ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির ১ লাখ ৬০ হাজার সদস্য।

এদিন ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন কনজারভেটিভ পার্টির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির (১৯২২ কমিটি) চেয়ারম্যান স্যার গ্রাহাম ব্র্যাডলি। তিনি জানান, এবারের নির্বাচনে ভোট পড়েছে প্রায় ৮২ দশমিক ৬ শতাংশ। এতে ৮১ হাজার ৩২৬টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন লিজ ট্রাস। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সুনাক পেয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯৯ ভোট।

এর ফলে, সবশেষ ১১ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর (এডওয়ার্ড হিথের পর থেকে) মধ্যে সাধারণ নির্বাচনে জয়ী না হয়েই ডাউনিং স্ট্রিটে প্রবেশ করা ষষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী হলেন লিজ ট্রাস।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com