২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৫শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

রাসুল (সা.)-কে কটূক্তি : সংসদে নিন্দা প্রস্তাব আনার দাবি হেফাজতের

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননাকারী ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতার বিরুদ্ধে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাস করার দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

শুক্রবার (১৭ জুন) চট্টগ্রাম নগরীর জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ ময়দানে হেফাজতে ইসলামের উদ্যোগে শানে রেসালাত সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন হেফাজতের আমীর আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী। সম্মেলনে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতারা শানে রেসালাতের ওপর ও ভারতে নবী অবমাননার প্রতিবাদে বক্তব্য রাখেন।

মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, সম্প্রতি ইন্ডিয়ার ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই কেন্দ্রীয় নেতা বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর শানে গুরুতর কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্যের ঘটনায় ওআইসি ও মধ্যপ্রাচ্যের আরব দেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম রাষ্ট্র সরকারিভাবে কঠোর প্রতিবাদ জানিয়েছে। ৯২ ভাগ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশ সরকার এখনো পর্যন্ত নীরবতা বজায় রেখে চলেছে। এতে গোটা জাতি গভীরভাবে হতাশ হয়েছে।

হেফাজতের আমীর বলেন, শানে রেসালাত সম্মেলন থেকে আমরা সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি, জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশনে রাসুল (সা.)-কে অবমাননার ঘটনায় অবিলম্বে নিন্দা প্রস্তাব পাস করুন। বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূতকে ডেকে সরকারিভাবে এ নিন্দনীয় ঘটনার কঠোর প্রতিবাদ জানান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ ন্যায্য অধিকারের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারসহ দেশের সর্বস্তরের জনগণ যেভাবে সোচ্চার, আমরা দাবি জানাই ভারতের সরকারও দেশটির সংখ্যালঘুদের সার্বিক নিরাপত্তা ও অধিকারের বিষয়ে অনুরূপ যত্নবান হবে।

হেফাজতের আমীর বলেন, গত ২০১০ সালের প্রণীত বাংলাদেশের জাতীয় শিক্ষানীতিতে ধর্মীয় শিক্ষাকে ব্যাপকভাবে সংকোচন করা হয়েছে। যার অনিবার্য পরিণতি হিসেবে বর্তমানে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে নীতি-নৈতিকতা, মানবিকতাবোধ ও ধর্মীয় বিশ্বাসের ক্ষেত্রে ব্যাপক হতাশাজনক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আজকের সম্মেলন থেকে আমরা সরকারের প্রতি ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে নৈতিক ও আদর্শিকভাবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে দেশের জাতীয় শিক্ষায় ধর্মীয় ও আদর্শিক শিক্ষাকে ব্যাপকতর করার জন্য জোর আহ্বান জানাচ্ছি।

এ সময় হেফাজত নেতারা বন্দী সকল আলেমকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি জোর আহ্বান জানান। যেসকল উলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করা হয়েছে, সেসব মামলা প্রত্যাহার করে আলেমদেরকে নির্বিঘ্নে ধর্মকর্ম পালন ও ইসলামের সেবা করার সুযোগ করে দেওয়ার আহ্বান জানান।

সম্মেলনে হেফাজতের সিনিয়র নায়েবে আমীর ও দারুল উলুম হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ ইয়াহইয়াসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com