১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে কুমিল্লার জয়

ক্রীড়া ডেস্ক : খেলার একদম শেষ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৬ রান। ব্যাটিং প্রান্তে ক্যারিবীয় দানব আন্দ্রে রাসেল। বোলিংয়ে সাইফউদ্দিন। দুর্দান্ত ইয়র্কারটি সামলাতে গিয়ে মাটিতে পড়ে যান রাসেল। উইকেটের পেছন দিয়ে বল চলে যায় সীমানার বাইরে! সেই বল আর ধরার চেষ্টা করেননি কুমিল্লার কোনো ফিল্ডার। শুরু হয়ে যায় বিজয়োল্লাস।

চট্টগ্রাম পর্ব শেষে শুক্রবার থেকেই শুরু হয়েছে ঢাকার শেষ পর্ব। দিনের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লার দেওয়া ছোট টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিতভাবে উইকেট হারাতে থাকে ঢাকা ডায়নামাইটস। ওপেনার উপুল থারাঙ্গা ৬ বলে কোনো রান না করেই মেহেদী হাসানের শিকার হন। অপর ওপেনার মিজানুর (১৬) ফিরেন মোশারফ হোসেনের বলে ইমরুলের তালুবন্দি হয়ে। সাইফ উদ্দিনের বলে বোল্ড হয়ে যান রনি তালুকদার (১)। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আজ দলকে টানতে পারেননি। অফ স্পিনার মেহেদীর দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে করেন ৭ রান।

২৯ রানে ৪ উইকেট হারানো দলটির হাল ধরার চেষ্টা করেন সুনিল নারাইন এবং কায়রন পোলার্ড। দলীয় ৭১ রানে শহিদ আফ্রিদির বলে অসাধারণ ক্যাচ নিয়ে সুনিল নারাইনকে (২২) ফেরান ওয়াহাব রিয়াজ। প্রতিরোধ গড়েছিলেন কায়রন পোলার্ড আর আন্দ্রে রাসেল। হার্ডহিটার পোলার্ডকে (৩৪) তামিমের তালুবন্দি করে প্রতিরোধ ভাঙেন সাইফউদ্দিন। এই পেস বোলিং অল-রাউন্ডারের তৃতীয় এবং চতুর্থ শিকার হন যথাক্রমে নুরুল হাসান (০) এবং রুবেল হোসেন (০)।

শেষ ওভারে ১৩ রান দরকার ছিল ঢাকার। বোলিংয়ে এসেই শুভাগত হোমকে (৪) তুলে নেন সাইফউদ্দিন। ৫ম বলে ছক্কা মেরে দেন রাসেল। শেষ বলে ছক্কা মেরে ঢাকাকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে পারেননি ২২ বলে ২৬* রান করা এই ক্যারিবীয় তারকা। বল মাটি কামড়ে সীমানার বাইরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কুমিল্লা ফ্র্যাঞ্চাইজির ক্রিকেটার-স্টাফরা মাঠে ঢুকে বিজয়োল্লাস শুরু করেন। ১২৭ রানের জবাবে ঢাকা ডায়নামাইটস থামে ৯ উইকেটে ১২৬ রানে। ১ রানের দুর্দান্ত এই জয়ে ২২ রানে ৪ উইকেট নেন কুমিল্লার ‘শেষ ওভারের নায়ক’ সাইফউদ্দিন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১২৭ রানে অল-আউট হয়ে যায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ২০ বলে সর্বোচ্চ ৩৮ রান করেন ওপেনার তামিম ইকবাল। এরপর মেহেদী হাসান (২০) রান ছাড়া আর কেউ বিশের কোটা পার হতে পারেনি। অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ১৩ বলে ৭ রান করেন। কুমিল্লার এই ধসে বড় ভূমিকা রাখেন ঢাকার গতি তারকা রুবেল হোসেন। ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে রুবেল তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব এবং সুনিল নারাইন।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে চিটাগং ভাইকিংস আর সিলেট সিক্সার্স। ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com