১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

শরীরে পানিশূন্যতা বুঝবেন যেভাবে

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : গরমে বেশি বেশি পানি পান করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। কারণ এ সময় শরীর থেকে প্রচুর পানি ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে যায়। এমতাবস্থায় পর্যাপ্ত পানি পান না করলে শরীরে কান্তি বোধ হয়। অনেক সময় পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে।

শরীরের পানিশূন্যতা বা ডিহাইড্রেশন নিয়ে মডলাইন প্লাস বলছে, ডিহাইড্রেটেড হওয়ার অর্থ এই নয় যে, আপনি শুধু শরীর থেকে তরল হারাচ্ছেন। এর সঙ্গে ইলেক্ট্রলাইট যেমন- লবণ ও পটাসিয়ামও হারিয়ে ফেলছেন। এই উপাদানগুলো শ্বাস নিতে, স্বাভাবিক চলাফেরা করতে, কথা বলতে এবং অন্যান্য কাজ করতে সহায়তা করে।

শরীরে পানিশূন্যতা আছে কিনা সেটি সময়মতো না বুঝলে বড় বিপদ হতে পারে। কিছু লক্ষণ দেখে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন পানিশূন্যতা।

১. লালা উৎপাদন কমে যাওয়া ও শ্বাসে সমস্যা : ডিহাইড্রেশন বা পানিশূন্যতার অন্যতম একটি সম্ভাব্য সতর্কসংকেত হচ্ছে লালা উৎপাদন কমে যাওয়া। আমাদের লালাতে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল বৈশিষ্ট্য থাকে, যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি হলে সকালে আপনার শ্বাস নিতেও কষ্ট হতে পারে।

হিউস্টনের টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয় মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক জন হিগিন্স এ বিষয়ে বলেন, ‘যদি আপনার পর্যাপ্ত লালা তৈরি না হয়, তা হলে আপনার মুখে ব্যাক্টেরিয়ার পরিমাণ অতিরিক্ত বেড়ে যেতে পারে। আর এর কারণে শ্বাসে দুর্গন্ধ হতে পারে।’

২. ত্বকে শুষ্কতা : শরীরে পানিশূন্যতা বোঝার আরেকটি উপায় হচ্ছে, ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া। তাই আপনার ত্বক যদি সবসময় শুষ্ক থাকে, তা হলে পানিশূন্যতা নিরাময়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিন।

৩. পেশিতে টান : আপনার শরীরে যখন পর্যাপ্ত তরল থাকবে না, তখন আপনার পেশিতে টান অনুভব হতে পারে ঠিক যেমনটি জিম করার পর মনে হয়। সাধারণত ব্যায়ামের পরে শরীরে ডিহাইড্রেশন হয় এবং পেশিতে টান লাগে। আর এটি যদি ব্যায়াম ছাড়াই হয়, তবে বুঝতে হবে এটি ডিহাইড্রেশনের কারণে।

৪. জ্বর ও ঠাণ্ডা : অনেক সময় জ্বর ও ঠাণ্ডা লাগা হতে পারে পানিশূন্যতার লক্ষণ। এ ছাড়া শরীরে পানিশূন্যতা বাড়িয়ে তুলতে পারে জ্বর ও ঠাণ্ডা। তাই জ্বর ও ঠাণ্ডা লাগা থাকলে বেশি করে শরীরে তরল দিন।

৫. মিষ্টি খাবারে লোভ : আপনার যদি হঠাৎ করেই মিষ্টি খাবারে লোভ হয়ে থাকে, তবে এটি হতে পারে আপনার ডিহাইড্রেশনের কারণে। আর এমনটি হয়ে থাকলে আপনি প্রচুর পানি পান করবেন। এতে আপনার শরীর ঠাণ্ডা হবে।

৬. মাথাব্যথা : শরীরে পানি প্রয়োজন এমন আরেকটি ইঙ্গিত হচ্ছে মাথাব্যথা। ডিহাইড্রেশনের কারণে অনেক সময় মাথাব্যথা দেখা দিতে পারে। তাই মাথাব্যথা হলে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।

 

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com