৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৮ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

শিগগিরই বিএনপিসহ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ : সিইসি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিএনপিসহ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে খুব শিগগিরই সংলাপে বসতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

শুক্রবার (২০ মে) সকালে সাভার উপজেলা মিলনায়তনে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, বিএনপিসহ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে শিগগিরই সংলাপে বসবে নির্বাচন কমিশন। আমরা চেষ্টা করছি বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে সুন্দর একটি নির্বাচন উপহার দিতে। একই সঙ্গে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাজী হাবিবুল আওয়াল বলেন, নির্বাচন কমিশন কখনই এককভাবে একটি নির্বাচনকে সফল করতে পারে না; এজন্য যারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী আছেন, প্রশাসন, জেলা প্রশাসন বা পুলিশ প্রশাসন তাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

তিনি বলেন, মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, রক্ষা করব ভোটাধিকার। ভোটাধিকার প্রয়োগ করা যেমন আমাদের নাগরিক দায়িত্ব তেমনি যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে জনপ্রতিনিধি হন তাদেরও জনগণকে দেওয়ায় নির্বাচনী অঙ্গীকারের কথা মনে রাখতে হবে।

আগামী জাতীয় নির্বাচনের বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে যে দায়িত্বটা গ্রহণ করেছি, নতুন একটি কমিশন হিসেবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি, আমরা আন্তরিক প্রত্যাশী। একেবারে অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে বলতে চাই আমাদের আন্তরিক প্রত্যাশা একটি অংশগ্রহণমূলক, প্রতিদ্বন্দিতামূলক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক, গণতন্ত্র বিকশিত হোক, ভোটের মাধ্যমে একটা দায়িত্বশীল পার্লামেন্ট গঠিত হোক। পার্লামেন্টে তর্ক-বিতর্কের মাধ্যমে জনগণের অধিকারও সংরক্ষিত হোক এবং আমরা একটি উন্নত রাষ্ট্র এবং উন্নত গণতন্ত্রের দিকে যেন ধাবিত হই আমি সেই প্রত্যাশা ব্যক্ত করছি।

এছাড়া ভোটের মাঠে নির্বাচনী সহিংসতা থেকে বেরিয়ে আসার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণ যদি সচেতন হয়, ভোটাররা যদি সচেতন হয়, ভোটাররা যদি প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠে, যখন ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে গিয়ে একজন ভোটার যদি ভোট দিতে না পারেন, তিনি যদি বাধাগ্রস্ত হন, তিনি যদি প্রতিবাদী হয়ে উঠেন তাহলে কিন্তু ভোটাধিকার প্রয়োগটা অনেক বেশি সহায়ক হবে। আজকে সাধারণ জনগণের পাশাপাশি হিজড়া, বেদে সম্প্রদায় ও যৌন কর্মীদেরও ভোটার তালিকায় আনা হয়েছে। তাই ভোটাধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে আমাদের সেই ধরনের মনস্তাত্ত্বিক শক্তিও অর্জন করতে হবে।

সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিস, ঢাকা ও সাভার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। এছাড়াও অনুষ্ঠানে সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, সাভার পৌরসভার মেয়র আবদুল গণি, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, স্থানীয় সরকারি কর্মকর্তা, নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে সিইসি বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম-২০২২ এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। পরে তিনি উপজেলার একটি বাড়িতে গিয়ে প্রথম হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু করেন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com