২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৯শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সুষ্ঠ নির্বাচন হলে ৩০ আসনও পাবে না আওয়ামী লীগ : ফখরুল

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দেশে সুষ্ঠ নির্বাচন হলে সেই ভোটে আওয়ামী লীগ ৩০টি আসনও পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগের কোন জনসমর্থন নেই মন্তব্য করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। এজন্য তারা জানে যে, দেশে একটা যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তাহলে তারা ৩০টি আসনও পাবে না। যার কারণে তারা সমস্ত রাষ্ট্রযন্ত্রকে দলীয়করণ করছে এবং বিচার বিভাগ এবং প্রশাসন এমনকি গণমাধ্যমকেও নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে।

শনিবার (২ অক্টোবর) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সিটিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি। ‘২০০১ সালের ১ অক্টোবর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে সর্বশেষ নিরপেক্ষ নির্বাচন’শীর্ষক এ সভায় অনুষ্ঠিত হয়।

স্লোগান দিয়ে আন্দোলন হবে না নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে করে এ কথা বলে মির্জা ফখরুল বলেন, আন্দোলনের তৈরি এবং প্রস্তুত হতে হবে। আর এখান যারা তরুণ তাদের অনেকের আন্দোলন সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা নেই।

‘এখানে খায়রুল কবির খোকন, আমান উল্লাহ আমনরা যারা আছেন, তারা জানেন কিভাবে আন্দোলন করতে হয়। সেটা মাথায় রেখে আমাদের সবগুলো সংগঠনকে সেইভাবে তৈরি করতে হবে।’

বিএনপি না কি হরতাল এবং জ্বালা-পেড়াও পার্টি আওয়ামী লীগের নেতাদের এ বক্তব্যে সমালোচনা করে তিনি বলেন, হরতাল এবং জ্বালা- পোড়াও আওয়ামী লীগের যে রেকর্ড, তা কেউ কোনও দিন অতিক্রম করতে পারবে না। তারা ১৭৩ দিন হরতাল দিয়েছে, মানুষ পুড়ে মেরেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস করে ক্ষমতায় এসেছে এবং সন্ত্রাসের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে আছে।

নির্বাচন-নির্বাচন খেলা আর হবে না ক্ষমতাসীনদের প্রতি এই হুঁশিয়ারি দিয়ে ফখরুল বলেন, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচন হতে হবে। আপনাদের দিন ঘনিয়ে এসেছে, দিন শেষ। এখন সময় আছে, মানুষের ভাষা পড়েন ও দেয়ালের লিখনগুলো দেখেন। তত্বাবধায়ক সরকারের বিধান করে সরে যান। জনগণকে তাদের ভোটের অধিকার প্রয়োগ করতে দিন।

নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, শেষ কথা, আমরা কোনও নির্বাচন মেনে নেবো না, যদি নির্বাচনকালীন সময়ে নিরেপেক্ষ সরকার না থাকে। তাই আসুন- আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই এবং এই দানবকে সরিয়ে দেই। শত্রু মুক্ত বাংলাদেশ ও গণতন্ত্র সৃষ্টি করি।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বিএনপির মহাসচিব বলেন, নিজের চেহারার দিকে দেখুন। খালেদা জিয়া উড়ে এসে জুড়ে বসেননি। জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। যখনই তিনি প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন, সিধা পথে, বাঁকা পথে আসেননি।

মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, অর্থনীতিবিদ ড. মাহবুব উল্লাহ, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com