২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৬ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

হাজিদের অপেক্ষায় মসজিদুল হারাম

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত সংখ্যক হাজির অংশগ্রহণে পবিত্র হজের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার থেকে হাজিরা মক্কায় আসা শুরু করবেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিশ্চিত করতে সর্বসাধরণের মসজিদুল হারামে নামাজ আদায়ের নিবন্ধন কার্যক্রম স্থগিত করেছে সৌদির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

সৌদি সংবাদ মাধ্যম আরব নিউজের সূত্রে জানা যায়, হাজিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিবেচনায় শুক্রবার (১৬ জুলাই) থেকে মসজিদুল হারামে সর্বসাধারণের নামাজ আদায়ের নিবন্ধন কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। আগামী ২৪ জুলাই থেকে তা পুনরায় চালু হবে।

হজ ও ওমরাহ বিষয়ক বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মুহাম্মদ আল বাসসামি জানান, মসজিদুল হারাম ও হজের পবিত্র স্থানগুলো পুরোপুরি খালি করা হয়েছে। এখানে অনুমোদিত ব্যক্তি ছাড়া আর থাকবে না। শুক্রবার থেকে সব স্থানে সর্বাত্মক নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সুরক্ষামূলক পুরোপুরি বাস্তবায়ন করা হবে।

হাজিদের বরণ করতে মক্কার আল শুমাইসি, আত তানয়িম, আল সাইল ও আল হুদাসহ মোট চারটি কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে। হাজিদের যাতায়াতের জন্য তিন হাজার বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতি বাসে ২০ জন করে হজযাত্রী চলাচল করবেন।

এছাড়াও ২০ হাজির জন্য একজন গাইড নিযুক্ত করা হয়। তাওয়াফের স্থানে ২৫টি সারি তৈরি করা হয়। এছাড়াও মসজিদুল হারামে হাজিদের প্রবেশ ও প্রস্থানে সামাজিক দূরত্বসহ সতর্কতামূলক সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

আগামীকাল ১৭ জুলাই (৭ জিলহজ) মক্কার চারটি কেন্দ্র দিয়ে হাজিদের আগমন শুরু হবে। ১৮ জুলাই (৮ জিলহজ) থেকে পবিত্র হজ শুরু হবে। এরপর ২২ জুলাই পর্যন্ত পবিত্র হজের কার্যক্রম পালন করবেন।

করোনা সংক্রমণ রোধে এই বছর সৌদিতে অবস্থানরত ৬০ হাজার হজযাত্রী হজ পালন করবেন। সর্বশেষ ২০১৯ সালে ২৫ লাখের বেশি হাজি মক্কা নগরীতে সমেবত হয়েছিল যা বিশ্বের সর্ববৃহৎ জনসমাবেশ হিসেবে মনে করা হয়। করোনা মহামারির পর গত বছর শুধুমাত্র এক হাজার লোক হজ পালন করেছেন।

সূত্র : আরব নিউজ

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com