৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

হেফাজত কমিটিতে থাকছেন আল্লামা শফীর অনুসারীরা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত সহিংসতার মামলায় চাপে থাকা হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।

এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সাবেক আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে আহ্বায়ক ও সাবেক মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদীকে সচিব করে আরও তিনজনকে আহ্বায়ক কমিটি সদস্য করা হয়। এই কমিটি গঠনের এক মাস পর সংগঠনটির সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে ফের শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হেফাজতের এক সাবেক নেতা বলেন, ‘বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজনৈতিক দলের পদে আছেন এমন কাউকে খসড়া কমিটিতে রাখা হয়নি। ইতোমধ্যে অনুমোদন দিয়েছেন বর্তমান আহ্বায়ক জুনায়েদ বাবুনগরী। ওই খসড়া কমিটিতে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির এবং আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব হিসাবে রাখা হয়। ওই কমিটির বর্তমান পরিধি ৩০-৩৮ সদস্যের হতে পারে। অচিরেই এ নতুন কমিটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসতে পারে। তবে তৈরি করা খসড়া কমিটি নিয়ে হেফাজত সংশ্লিষ্টরা প্রকাশ্যে মুখ খুলতে রাজি নন। নতুন কমিটিতে আল্লামা শফীর অনুসারী বেশ কয়েকজনকে রাখা হয়েছে নতুন কমিটিতে। তাদের নাম এখনো স্পষ্ট করে কেউ জানাতে পারেনি।’

এদিকে কমিটি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন সদ্য বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, নাছির উদ্দিন মুনির, খালিদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, সহকারী মহাসচিব হাসান জামিল, প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়জী, শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহারসহ নানা ইস্যুতে বিতর্কে জড়িয়ে পড়া হেফাজতের নেতারা।

আল্লামা শফীর অনুসারীরা যা বলেন : হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমির শাহ আহমদ শফীর অনুসারী নেতারা বলেছেন, আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী হত্যা মামলায় স্বীকৃত আসামিরা হেফাজতের কর্ণধার হতে পারে না। আমরা নিয়মতান্ত্রিকভাবে হেফাজতে ইসলামের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি। অচিরেই দেশের শীর্ষস্থানীয় উলামায়ে কেরামের পরামর্শে নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে এর গঠন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘শাইখুল ইসলাম শহীদ আল্লামা শাহ আহমদ শফী রাহ.-এর হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ও উসকানিদাতাদের গ্রেফতারপূর্বক বিচারকাজ দ্রুত সম্পন্ন করার দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। ‘শায়খুল হাদিস আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) এর ভক্তবৃন্দ’ ব্যানারে এর আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলন থেকে নেতারা ওই ঘোষণা দেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন হেফাজতে ইসলামের সাবেক সাহিত্য সম্পাদক মাওলানা নুরুল ইসলাম জাদিদ।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com