৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৯ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি দাবি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : স্বীকৃতি বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধাদের আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে স্বীকৃতি প্রদান ও শিক্ষার সব ক্ষেত্রে ধর্মীয় শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার দাবি জানিয়েছে ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ

স্বাধীনতার ৫১ বছর পরেও মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধারা স্বীকৃতি বঞ্চিত থাকাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন সংগঠনটির নেতারা। বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে সংগঠনটির নেতারা ৮ টি দাবি ও ২টি কর্মসূচির প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করেন।

ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ সভাপতি শহিদুল ইসলাম কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম।

বক্তব্য রাখেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) মহাসচিব মুহাম্মাদ গোলাম মোস্তফা ভুইয়া প্রমুখ।

মানববন্ধনে ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের পক্ষ থেকে ৮ দফা জানানো জানানো হয়।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে— ১. স্বাধীনতার ৫১ বছর পরও যেসব মুক্তিযোদ্ধা এখনও স্বীকৃতি বঞ্চিত রয়েছেন, তাদেরকে ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে স্বীকৃতি প্রদান, ২. মুসলিম প্রধান বাংলাদেশের শিক্ষা সংস্কৃতি বিনষ্টের মাধ্যমে ভিন্ন দেশ ও ধর্মের শিক্ষা-সংস্কৃতি প্রবর্তনের চক্রান্ত বাতিল করে চক্রান্তকারীদের শাস্তির আওতায় আনা, ৩. নৈতিকতা সম্পন্ন অপরাধমুক্ত আদর্শ দেশ ও জাতি গঠনে শিক্ষার সকল ক্ষেত্রে মুসলিম ছাত্রদের জন্য ইসলামী শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা, ৪. ভোজ্যতেল, চিনি-ডিমসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি রোধ করে মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আনা, ৫. দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির শত্রু দুর্নীতিবাজ, রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাটকারী এবং বিদেশে অর্থপাচারকারীদের পরিচয় জাতির সামনে তুলে ধরা, ৬. শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের জন্য নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে এয়ারকন্ডিশনের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা, ৭. গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও চুরি বন্ধ করে আবাসিক গ্রাহকদের হয়রানি বন্ধ করা, ৮. রেমিটেন্সযোদ্ধা প্রবাসীদেরকে বিমান বন্দরে হয়রানী বন্ধ করা এবং প্রবাসে বাংলাদেশের দূতাবাস সমূহে প্রবাসীদের যথাযথ মর্যাদা প্রদান করা।

এছাড়া শিক্ষার সকল ক্ষেত্রে ধর্মীয় শিক্ষা বাধ্যতামূলক করাসহ ২০ দফা দাবিতে আগামী ১০ নভেম্বর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির চরমোনাই পীর ঘোষিত কর্মসূচির প্রতি পূর্ণ সমর্থন ও একাত্মতা ও ইসলামী শিক্ষা সংস্কৃতি বিনষ্টের চক্রান্তের প্রতিবাদে বাংলাদেশ জমিয়তুল মুদাররেসীন ঘোষিত ১৩ দফা দাবিতে ১৪ নভেম্বর জেলা পর্যায়ে ঘোষিত কর্মসূচির প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করা হয়।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com