১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হবে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ● ২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মুসলিম অধ্যুষিত দেশে পরিণত হবে ভারত। মার্কিন গবেষণা সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠেছে।

পিউ রিসার্চের প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে খ্রিষ্টান ধর্মের পর ইসলাম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্ম। এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল প্রধান ধর্মও ইসলাম। এবং বর্তমানের এই জনসংখ্যাবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকে তাহলে চলতি শতাব্দীর শেষের দিকে খ্রিষ্টান ধর্মকে ছাড়িয়ে যাবে ইসলাম।

পিউ রিসার্চ বলছে, ২০১০ সালে বিশ্বে মুসলিম জনগোষ্ঠীর পরিমাণ ছিল ১৬০ কোটি; যা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ২৩ শতাংশ। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মুসলিম দেশ ইন্দোনেশিয়া।

এর আগে ২০১৫ সালে পিউ রিসার্চের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী দশকে বিশ্বে জনসংখ্যা ৩৫ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে ধারণা করা হলেও মুসলিম জনসংখ্যা বাড়বে ৭৩ শতাংশ। এর ফলে বিশ্বে মুসলিম জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ২৮০ কোটিতে পৌঁছাতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হয়।

গত বছরের অক্টোবরে মার্কিন এই গবেষণা প্রতিষ্ঠান জানায়, ২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হারের চেয়ে মুসলিমদের সংখ্যা দ্বিগুণ হারে বাড়বে। এই গবেষণা প্রতিবেদনে ২০১০ থেকে ২০৫০ সালের মধ্যে বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, হিন্দু, ইহুদি, মুসলমান, লোক ধর্ম ও অন্য ধর্মের আকার ও পরিবর্তনের চিত্র তুলে ধরা হয়।

গবেষণায় অনেক মানুষকে ধর্মের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ভবিষ্যৎবাণী করতে বলা হয়েছিল। এই প্রথম বিশ্বের বিভিন্ন গোষ্ঠীর অনেক মানুষের আনুষ্ঠানিক বয়স, জন্ম-মৃত্যুহার, মাইগ্রেশন এবং ধর্ম পরিবর্তনের তথ্য ব্যবহার করে গবেষণা করা হয়।

বিশ্বের প্রসারমান ধর্ম হতে ইসলামকে সহায়তা করছে মুসলিমদের জন্মহার। মার্কিন এই গবেষণা প্রতিষ্ঠান ২০১০ সালের এক গবেষণায় জানায়, বিশ্বের ৩৪ শতাংশ মুসলিমের বয়স ১৫ বছরের নিচে; অপরদিকে ৩০ শতাংশ হিন্দু ও ২৭ শতাংশ খ্রিস্টানের বয়স ১৫ বছরের নিচে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com