বাংলাদেশ নির্বাচন: জাতিসংঘ চায় ‘অবাধ ও ভয়ভীতিমুক্ত’ ভোট

বাংলাদেশ নির্বাচন: জাতিসংঘ চায় ‘অবাধ ও ভয়ভীতিমুক্ত’ ভোট

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম: জাতিসংঘ বলেছে, তারা এমন একটি নির্বাচন দেখতে চায় যেখানে প্রত্যেক বাংলাদেশি ভয়ভীতিমুক্ত এবং কোনো ধরনের প্রতিক্রিয়া ছাড়াই ভোট দিতে পারেন।

 

নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টেফান দুজারিক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, “আমরা এ বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছি এবং অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের আহ্বান জানাচ্ছি। যাতে প্রতিটি বাংলাদেশি ভয়ভীতি ছাড়া বা কোনো ধরনের প্রতিক্রিয়া ছাড়াই ভোট দিতে পারেন।”

 

এক সাংবাদিক রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস এবং আইসিএইডিসহ ছয়টি শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার কথা উল্লেখ করেন, যারা বাংলাদেশের মৌলিক অধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

 

জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, “আমরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট পক্ষের সঙ্গে যোগোযোগ অব্যাহত রাখব। সেই সঙ্গে বাংলাদেশে এমন একটি নির্বাচন আয়োজনে সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানিয়ে যাব, যাতে প্রত্যেক বাংলাদেশি নির্ভয়ে এবং কোনো ধরনের পাল্টা প্রতিক্রিয়ার আশঙ্কা ছাড়াই ভোট দিতে পারেন।”

 

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বাংলাদেশের বর্তমান মানবাধিকার পরিস্থিতি এবং ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারির জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে নাগরিক পরিসর সংকুচিত হওয়ার বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা বিশ্বের ছয়টি সংগঠন।

 

উদ্বেগ প্রকাশ করা সংগঠনগুলো হলো রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস (আরএফকেএইচআর), ক্যাপিটল পানিশমেন্ট জাস্টিস প্রজেক্ট (সিপিজেপি), দ্য ইউনাইটেড অ্যাগেইনস্ট টর্চার কনসোর্টিয়াম (ইউএটিসি), এশিয়ান ফেডারেশন অ্যাগেইনস্ট ইনভলান্টারি ডিজঅ্যাপিয়ারেন্সেস (এএফএডি), অ্যান্টি-ডেথ পেনাল্টি এশিয়া নেটওয়ার্ক (এডিপিএএন) ও ইন্টারন্যাশনাল কোয়ালিশন অ্যাগেইনস্ট এনফোর্সড ডিসঅ্যাপিয়ারেন্সেস (আইসিএইডি)।

 

এক যৌথ বিবৃতিতে এই উদ্বেগ জানায় সংগঠনগুলো এবং রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটসের ওয়েবসাইটে বিবৃতিটি প্রকাশ করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *