৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে অনুমোদন পাচ্ছে নগদ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান (এনবিএফআই) হিসেবে প্রাথমিক অনুমোদন পেয়েছে বাংলাদেশ পোস্ট অফিসের (বিপিও) অস্থায়ী মোবাইল আর্থিক পরিষেবা (এমএফএস) নগদ।

মঙ্গলবার (৩০ সেপ্টেম্বর) নিয়ন্ত্রকের পরিচালনা পর্ষদের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক একটি লেটার অব ইন্টেন্টের (এলওআই) মাধ্যমে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ পোস্ট অফিস কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের মোবাইল আর্থিক পরিষেবার নিয়ম মেনে চলতে পারেনি বিধায় নগদকে ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

নন-ব্যাংকিং বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ার আগে পূরণের জন্য নগদকে কিছু শর্ত বেধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, নগদকে দেওয়া প্রধান শর্ত হলো বৈদেশিক মুদ্রার প্রবাহ বাড়াতে বিদেশি উৎস থেকে পরিষেবা বিনিয়োগের ৯০%-এর বেশি আনতে হবে।

বৈঠকে অংশ নেওয়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তা বলেন, নগদের আর্থিক প্রস্তাবনা অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্র ও সিঙ্গাপুর থেকেই বিনিয়োগের বড় অংশ আসবে।

এর আগে, ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে অনুমোদন পাওয়ার জন্য নগদ ফিন্যান্স পিএলসি হিসেবে জাতীয় ব্যাংকে আবেদন করেছিল। তবে শুধুমাত্র অস্থায়ী অনুমোদন ব্যতিত মোবাইল আর্থিক পরিষেবা হিসেবে কাজ করার অনুমতি পায়নি নগদ।

নিয়ম অনুযায়ী, একটি মোবাইল আর্থিক পরিষেবা প্রতিষ্ঠানকে অন্য আরেকটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বা সরকারি সংস্থার সহায়ক হতে হবে। উদাহরণস্বরূপ হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংকের বিকাশ এবং ডাচ-বাংলা ব্যাংকের রকেটের কথা বলা যায়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশোধিত নীতি অনুসারে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমতি সাপেক্ষে সরকারি প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগ কিংবা ব্যাংক ব্যতিত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অংশ হিসেবে একটি মোবাইল আর্থিক পরিষেবা প্রতিষ্ঠান গঠন করা যেতে পারে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, এখন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন পাওয়ার জন্য নতুন এনবিএফআইয়ের অধীনে একটি সাবসিডিয়ারি গঠন করতে হবে। এরপর নগদ আর সরকারি পরিষেবা থাকবে না বরং বিকাশের মতো বেসরকারি মোবাইল আর্থিক পরিষেবার মতো হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউশন অ্যাক্ট অনুযায়ী একটি তাদের ১০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন থাকা প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ করতে হবে।

তবে নগদের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক বলেছেন: বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক নগদ ফাইন্যান্স পিএলসি-এর অনুমোদনের বিষয়ে সাংবাদিকরা আমাদের জানিয়েছেন। তবে আমাদের কাছে এখনও এ বিষয়ে কোনো তথ্য নেই।

তিনি আরও জানান, মোবাইল আর্থিক পরিষেবা হিসেবে নগদ লিমিটেড বর্তমানে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্বে রয়েছে। এক্ষেত্রে, নগদ ফিন্যান্স পিএলসি আর নগদ লিমিটেডের মধ্যে সম্পর্কও একইরকম থাকবে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com