১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ইজতেমার প্রথম দিন: ‘এটা কোনো ওয়াজের মাহফিল নয়, আমলের মাহফিল’

পাথেয় টোয়ন্টিফোর ডটকম : বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ইসলাহী ইজতেমা কোনো ওয়াজের মাহফিল নয়, এটা আমলের মাহফিল বলে জানিয়েছেন বেফাকুল মাদারিসিদ্দীনিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম, ফিদায়ে মিল্লাত সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী (রহ.) এর খলীফা, শাইখুল ইসলাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

তিনি বলেছেন, এখানে আমরা আমলের প্রশিক্ষণে এসেছি, এখানে যা যা শিখবো তা বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে আমল করবো। আর এই দুই দিন আমরা আল্লাহ তাআলার ধ্যান ও ইবাদাতে মগ্ন থাকবো। দুনিয়াবী কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকবো।

শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর খিলগাঁও চৌধুরিপাড়ায় জামিআ ইকরা বাংলাদেশ প্রাঙ্গণে দুই দিনব্যাপী ইসলাহী ইজতেমার প্রথম দিন বাদ এশার বয়ানে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।

সাহাবায়ে কেরামের সমালোচনা করা যাবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইসলাম ধর্ম প্রচার ও বিস্তারে সাহাবায়ে কেরামের থেকে বেশি কষ্টের সম্মুখীন আর কেউ হয়নি। দ্বীনের জন্য তারা নিজেদের জীবন বাজি রেখে কাজ করেছেন। যার জন্য রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং আল্লাহ তাআলা তাদের প্রতি সন্তুষ্ট। তাই কখনই তাদের সমালোচনা ও দোষ চর্চা করা যাবে না, যারা করে তাদের উপর আল্লাহর লানত। আমরা তাদের থেকে দূরে থাকবো, সাহাবায়ে কেরামের দেখানো পথেই চলবো।

আল্লাহর নামের জিকিরে অন্তর পবিত্র হয়, অন্তরে প্রশান্তি আসে মন্তব্য করে শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম বলেন, পৃথিবীর সবচেয়ে মধুর শব্দ আল্লাহ ও তাঁর নামের জিকির। আল্লাহ নামের জিকিরের স্বাদ, আল্লাহ নামের স্বাদ কখনো কমে না, বরং যত বেশি বেশি করবে ততো স্বাদ বৃদ্ধি পাবে। আল্লার নামের জিকিরে কখনো বিরক্তিও আসে না। যে ব্যক্তি যত বেশি জিকির করবে সে আল্লাহর কাছে ততো প্রিয় হতে থাকবে।

দুরুদ শরীফ নবীজীর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করার অন্যতম মাধ্যম উল্লেখ করে আল্লামা মাসঊদ বলেন, দরুদ শরীফ গুরুত্বপূর্ণ একটি আমল। এ আমলের মাধ্যমে একসঙ্গে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের সন্তুষ্টি পাওয়া যায়। এটি মুমিনের আত্মার খোরাক এবং প্রিয় তাসবিহ। আমাদের পেয়ারে নবীজীকে ভালোবাসার শ্রেষ্ঠ নিদর্শন তাঁর উপর দুরুদ পাঠ করা। আমরা বেশি বেশি দুরুদ পড়ি, নবীজীর সঙ্গে গভীর সম্পর্ক তৈরি করি।

এছাড়াও আজ ইজতেমায় উদ্বোধনী বয়ান করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার সহসভাপতি ও জামিআ ইকরা বাংলাদেশের রঈস মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ, ছয় তাসবির আমল পরিচালনা করেছেন মাওলানা শাহাদাত হোসাইন এমদাদী, ইসলাহী ইজতেমার গুরুত্ব ও কর্মসূচি সম্পর্কে আলোচনা করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার মহাসচিব ও জামিআ ইকরা বাংলাদেশের সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুর রহিম কাসেমী, দুরুদ শরীফের আমল পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর নির্বাহী সভাপতি ও ইকরা বাংলাদেশের প্রিন্সিপাল মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন, ইসলাহে নফসের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা নিয়ে বয়ান করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার সাংঘঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মাদানী নগর মাদারাসার মুহতামিম মুফতি ইমদাদুল্লাহ কাসেমী, তাহাজ্জুতের গুরুত্বের ব্যাপারে নসিহত করেছেন মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম খাঁন।

হাজারো দেশ বরেণ্য আলেমদের উপস্থিতিতে ইজতেমায় আগত মুসল্লীদের মাঝে আগ্রহীরা মাওলানা সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী (রহ.) এর খলীফা আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ হাতে বায়আত গ্রহণ করেন। বায়আত শেষে মোনাজাতে আল্লাহর কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা ও করোনা মহামারি থেকে মুক্তি এবং মুসলিম উম্মাহের জন্য শান্তি কামনা করেন তিনি।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com