৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ , ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৬ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

তালেবান সরকারকে আর মানবিক সাহায্য করছে না জার্মানি

তালেবানের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : জার্মান সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে তারা আফগানিস্তানে মানবিক সাহায্য পাঠাতো। ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের সঙ্গে জোট বেঁধে একাধিক কাজে তারা অংশ নিতো। কিন্তু আফগানিস্তানের এনজিওগুলোতে মেয়েদের কাজ করা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে তাদের পক্ষে ওই মানবিক সাহায্য পাঠানো আর সম্ভব নয়। তালেবান যে অমানবিক আচরণ করছে মেয়েদের সঙ্গে তা মেনে নেয়া সম্ভব নয় বলে স্পষ্ট জানানো হয়েছে।

জার্মান উন্নয়ন মন্ত্রী জানিয়েছেন, আফগানিস্তানের এনজিওগুলোর মাধ্যমে মানবিক সহায়তা পাঠানো হতো। দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্যই ওই সাহায্য পাঠানো হতো।

কিন্তু তালেবান সরকার তা হতে দিচ্ছে না। একের পর এক অমানবিক কাজ করছে তারা। এনজিওগুলোতে নারীরা কাজ না করলে আর সাহায্য পাঠানো সম্ভব নয় বলে টুইট করেছেন তিনি।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবকও একই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। তালেবানের কাজকে অমানবিক ও অন্যায় বলে ব্যাখ্যা করেছেন তিনি। সপ্তাহখানেক আগে তালেবান পরপর দুইটি সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিল। যা নিয়ে গোটা বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

তালেবান জানিয়েছে, মেয়েরা বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে পারবে না। বস্তুত, ষষ্ঠ শ্রেণির পর মেয়েদের পড়াশোনা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অন্যদিকে, এনজিও ও স্বাস্থ্য পরিষেবা সংক্রান্ত সংস্থাগুলোতে নারীরা কাজ করতে পারবেন না বলে ফরমান জারি করা হয়েছে।

নতুন করে ক্ষমতায় আসার পর তালেবান জানিয়েছিল, মানবাধিকারের বিষয়গুলো মাথায় রাখা হবে। নারীদের পড়তে দেয়া হবে, কাজও করতে পারবেন তারা। কিন্তু যত দিন যাচ্ছে, ততই কঠোর হচ্ছে তালেবান।

বস্তুত, শুধু জার্মানি নয় ইউরোপের একাধিক দেশ আফগানিস্তানে সাহায্য পাঠানো বন্ধ করে দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আফগানিস্তানে যে আন্তর্জাতিক এনজিওগুলো কাজ করে, তারাও সাহায্য পাঠানো বন্ধ করে দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com