১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

নিউজিল্যাণ্ডে সন্ত্রাসী হামলায় সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর নিন্দা

নিউজিল্যাণ্ডে সন্ত্রাসী হামলায় সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর নিন্দা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে হামলার প্রতিবাদে পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী ও রাজ্য জমিয়তে উলামা হিন্দের সভাপতি মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেন, নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে হামলার ঘটনায় আমরা বাকরুদ্ধ। স্তব্ধ। শোকাহত।

তিনি বলেন, যে সন্ত্রাসী হামলায় বিশ্ব কেঁপে উঠছে ,সেই হামলায় জড়িতদের মধ্যে এক নরপশু হচ্ছে ,বিশ্বের মোড়ল ডোনাল্ড ট্রাম্পের অন্ধ ভক্ত বলে জানাগেছে। যদিও এ খবরের সত্যতা পাওয়া যায়নি এখনও।

তিনি বলেন, এ ঘটনা শুধু নিউজিল্যাণ্ড নয় ,সমগ্র বিশ্বের জন্য অশনি সঙ্কেত বটে। জাতপাতের অঙ্ক নয় ,সন্ত্রাসীদের বাছাই করে এদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানানোর পাশাপাশি , ইউরোপে ইসলাম বিদ্বেষী বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার কারণে আজ শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন, ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা ,বলে মনে করেন তাহারা ,যা খুবই ব্যদনাজনক এবং সঙ্গে নিহতদের জান্নাত কামনা করেন, মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী , সাংসদ আহমদ হাসান ইমরান এবং আসাম রাজ্যের হাইলাকান্দি সমষ্টির বিধায়ক আলহাজ আনোয়ার হোসেন লস্কর।

এ ছাড়া আরও নিন্দা জানিয়েছেন, কলকাতার দাপটে সাংসদ তথা “দৈনিক পুবের কলম” পত্রিকার এডিটর আহমদ হাসান ইমরান এবং আসামের প্রতিবাদী কন্ঠ বিধায়ক আনোয়ার হোসেন লস্কর । তিন দাপটে রাজনীতিবিদ‘ বরাক প্রাইম টাইম নিউজ বার্তায়’।

উল্লেখ্য , বিভিন্ন ভাষাভাষীর দেশ বলে পরিচিত নিউজিল্যাণ্ডের দুই মসজিদে একই সময়ে ,জুমআর নামাজে আসা মুসল্লিদের ওপর টার্গেট করে হামলা করা হয় । প্রথম মসজিদ থেকে ২য় মসজিদের দূরত্ব ছিল তিন মাইল । রক্তে রক্তাক্ত হয় মসজিদ, নিহত হন ৪৯, যা নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে কালো অধ্যায় বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত,  দেশকে মুসলমানগণ ভালোবাসে, মুসলমান কখনোই দেশদ্রোহী নয়। সেকথারই আবার প্রমাণ দিলেন নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় আক্রান্ত মসজিদের ইমাম ইব্রাহিম আব্দুল হালিম। তিনি শনিবার বলেছেন, হামলাসত্ত্বেও নিউজিল্যান্ডের প্রতি মুসলিম সম্প্রদায়ের ভালবাসা কমবে না।

এক বন্দুকধারী যখন ক্রাইস্টচার্চের ওই মসজিদে সেমি-অটোমেটিক অস্ত্রের সাহায্যে হামলা চালাচ্ছিল তখন তিনি সেখানে নামাজের ইমামতি করছিলেন।

নিউড মসজিদের ইমাম হালিম বলেন, আমরা এখনো এই দেশকে ভালবাসি।

তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, চরমপন্থীরা কখনোই আমাদের আত্মবিশ্বাসে ফাটল ধরাতে পারবে না।

নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে হামলার পর প্রচণ্ড ধাক্কা খেয়েছে সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়। মারাত্মক প্রাণঘাতী এ হামলাকে নিউজিল্যান্ডের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশটির বেশির ভাগ মানুষ সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যে বিশ্বাসী। এর পরও ভয়াবহ সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটল।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com