২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৪ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

নিউজিল্যান্ডকে হুমকির উৎস ভারত: পাকিস্তানি মন্ত্রী

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : পাকিস্তানের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী দাবি করেছেন, ভারতের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই পাকিস্তানে বিদেশি ক্রিকেট দলের সফর বন্ধের পায়তারা চলছে। যে ডিভাইস ব্যবহার করে নিউজিল্যান্ড দলকে হুমকি দেওয়া হয়েছে, সেটি ভারতে ব্যবহৃত হয়েছে।

ইসলামাবাদে বুধবার পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদের সঙ্গে একটি সংবাদ সম্মেলনে ফাওয়াদ চৌধুরী ভারতের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, সবকিছুর সূত্রপাত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেয়া একটি ‘ভুয়া পোস্ট’ থেকে। গত মাসে তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের যোদ্ধা এহসানউল্লাহ এহসানের নাম ধরে ওই পোস্টে নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড ও সরকারকে হুমকি দেওয়া হয় যে, পাকিস্তান সফরে গেলে তাদের দলকে ‘টার্গেট করা হবে।’

ঐ পোস্ট থেকেই পরে ‘সানডে গার্ডিয়ান’ ওয়েবসাইটে নিউজিল্যান্ড দলকে হুমকি দেওয়া নিয়ে খবর প্রকাশ করা হয়। ভারতীয় রাজনীতিবিদ ও ২০১৮ সালের অক্টোবর পর্যন্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা এমজে আকবর এই ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা বলে দাবি করেছেন ফাওয়াদ।

ফাওয়াদ জানান, ভুয়া ওই পোস্টের পর গত ২৪ অগাস্ট ‘তেহরিক-ই-লাব্বাইক’ আইডি থেকে নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটার মার্টিন গাপটিলকে হুমকি দিয়ে একটি ই-মেইল করা হয় তার স্ত্রীকে।

পাকিস্তান এই ই-মেইল আইডির উৎস অনুসন্ধান করছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা যখন আরও খোঁজ নিলাম, কিছু তথ্য জানতে পারলাম। প্রথমত, এই ই-মেইল আইডি কোনো সোশাল নেটওয়ার্কের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয় এবং ওই অ্যাকাউন্ট থেকে স্রেফ একটি ই-মেইলই করা হয়েছে।

প্রোটনমেইল (নিরাপদ সেবা) ব্যবহার করে ওই মেইল করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়ে ফাওয়াদ জানান, এটির উৎস অনুসন্ধানে ইন্টারপোলের সাহায্য নিচ্ছেন তারা।
তবে তখন পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড দল এসব হুমকিকে গুরুত্ব দেয়নি এবং পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার আশ্বাস পেয়ে তারা সফরে যায় এবং অনুশীলনও করতে থাকে। ১৮ বছরের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের প্রথম পাকিস্তান সফর ছিল এটি।

কিন্তু খেলা শুরুর আগমুহূর্তে ‘সুনির্দিষ্ট’ ও ‘বিশ্বাসযোগ্য’ হুমকির কথা বলে সিরিজ স্থগিত করে দেশে ফেরার করা জানায় নিউজিল্যান্ড।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড ও সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে নিউজিল্যান্ড দলের কাছে অনেক অনুরোধ করা হলেও তারা হুমকির তথ্য পাকিস্তানকে দেয়নি বলে জানান ফাওয়াদ। এই মন্ত্রীর দাবি, পরে তারা জানতে পারেন, হামজা আফ্রিদি নামের আইডি থেকে নিউজিল্যান্ড দলকে হুমকি দেওয়া হয়। এই আইডির উৎস অনুসন্ধানে গিয়েই তারা ভারতীয় সংযোগের কথা জানতে পারেন।

এই ঘটনার সাথে ভারতের সংযোগ রয়েছে দাবি করে ফাওয়াদ বলেন, একই ডিভাইস থেকে ১৩টি আইডি ব্যবহার করা হয়। অন্য সব আইডি ছিল ভারতীয় অভিনেতা ও তারকাদের নামে। কেবল একটি আইডি ছিল হামজা আফ্রিদি নামে, যেন বোঝানো যায় যে এই ই-মেইল করা হয়েছে পাকিস্তান থেকে। ইচ্ছে করেই এই নাম দেখানো হয়, যাকে ফুটিয়ে তোলা যায় যে পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হুমকি আছে।

“যে ডিভাইস ব্যবহার করে এই হুমকি দেওয়া হয়, তা আছে ভারতে। একটি ভুয়া আইডি ব্যবহার করা হয়েছে, কিন্তু এটি পাঠানো হয়েছে মহারাষ্ট্র থেকে। ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক (ভিপিএন) দিয়ে এটি পাঠানো হয়েছে, তাই এটির অবস্থান দেখিয়েছে সিঙ্গাপুর। কিন্তু পুরো হুমকির প্রাথমিক উৎস ভারত।”

তবে এই দাবির পেছনে কোনো ধরণের প্রমাণ তিনি উপস্থাপন করেননি।

আগামী ডিসেম্বরে পাকিস্তানে সফর করার কথা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের। তবে তাদেরকেও এখনই হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে জানান ফাওয়াদ। এখানে তিনি আইসিসির হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

“এটা দুর্ভাগ্যজনক। আমাদের বিশ্বাস, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বিরুদ্ধেই ষড়যন্ত্র এটি। আইসিসি ও অন্যান্য সংস্থার উচিত এসব খতিয়ে দেখা।”

বিগত ২০০৯ সালে পাকিস্তানের মাটিতে সফতরত শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের উপর জঙ্গীবাদী সন্ত্রাসী আক্রমণ চালানো হয়। এরপর দীর্ঘ ১০ বছর পাকিস্তানে কোনো বিদেশি ক্রিকেট দল খেলতে যায়নি। এরপর বছর খানেক পাকিস্তানে ক্রিকেট চললেও এবার নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরী হওয়ার পর ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলও পাকিস্তানে তাদের সফর বাতিল করে।

নিজের দেশের সন্ত্রাসী তকমা মেটাতে মরিয়া পাকিস্তান এরপর বাংলাদেশের সহায়তা কামনা করে৷ কিন্তু বাংলাদেশ রাজি হয়নি ক্রিকেটারদের জীবনকে হুমকির মুখে ফেলতে, পাকিস্তানের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে বাংলাদেশ।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com