২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৭শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

নেপালে বিধ্বস্ত প্লেনের ১৬ আরোহীর মরদেহ উদ্ধার

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : নেপালে বিধ্বস্ত প্লেনের ১৬ আরোহীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বর্তাসংস্থা এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার পাহাড়ের ধারে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা যাত্রীবাহী প্লেনটির ধ্বংসাবশেষ থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। আগের দিন রোববার হিমালয় অঞ্চলে ২২ জন আরোহী নিয়ে প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়।

গতকাল সকালে নেপালের পশ্চিমাঞ্চলীয় পোখারা থেকে বেসরকারি সংস্থা তারা এয়ারের প্লেনে জমসন শহরে যাচ্ছিল। জমসন বিমানবন্দরে পৌঁছানোর আগে নিয়ন্ত্রণকক্ষের সঙ্গে প্লেনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

প্লেনের আরোহীদের মধ্যে চারজন ভারতীয় ও দুজন জার্মানির নাগরিক ছিলেন। অন্যদের মধ্যে একজন নেপালি কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার, তার স্ত্রী ও তাদের দুই মেয়ে ছিলেন। তারা কেবলই যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিরেছেন।

নিয়ন্ত্রণকক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করে সেনাবাহিনী ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের হেলিকপ্টার প্রত্যন্ত পাহাড়ি অঞ্চলে রোববার দিনভর অনুসন্ধান চালায়। কয়েকটি দল পায়ে হেঁটে এই অনুসন্ধানের কাজে সহায়তা করে। কিন্তু রাত নামলে নিষ্ফল এই তল্লাশি অভিযান বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সোমবার ফের তল্লাশি অভিযান শুরু হয়। এরপর পাহাড়ের ঢালে পড়ে থাকা উড়োজাহাজটির বিভিন্ন অংশ ও ছড়িয়ে থাকা অন্যান্য ধ্বংসাবশেষের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করে সেনাবাহিনী। প্লেনটির একটি পাখায় ৯এন-এইটি নিবন্ধন নম্বরটি স্পষ্টভাবে নজরে পড়ছিল।

বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র দেও চন্দ্র লাল করন বলেন, এখন পর্যন্ত ১৬টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি ছয়জনের খোঁজে তল্লাশি অব্যাহত রেখেছে উদ্ধারকারী দল।

দুর্ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনী, পুলিশ, পাহাড়ি গাইড ও স্থানীয় ব্যক্তিরা মিলে প্রায় ৬০ জন উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের অধিকাংশই কয়েক মাইল পায়ে হেঁটে সেখানে পৌঁছান।

কর্তৃপক্ষ জানায়, মুসতাং জেলার থাসাং পৌরসভার সানোসওয়ার এলাকায় সাড়ে ১৪ হাজার ফুট ওপরে প্লেনটি দুর্ঘটনায় পতিত হয়।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com