২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৬ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

পায়ে বিউটির এইচএসসি পরীক্ষার যুদ্ধ

পায়ে বিউটির এইচএসসি পরীক্ষার যুদ্ধ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : এক হাতে লড়াইয়ের কথা আমরা জেনেছি। এক পায়ে যুদ্ধ করে পরিবারের মাথায় বসে দায়িত্ব পালন করছে অনেক মানুষ। সে ধারারই একজন বিউটি আকতার। তিনি পায়ে লিখে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। পরীক্ষাও দিচ্ছেন।

পায়ে লিখে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী বিউটি আকতার।

জাহানারা কামরুজ্জামান ডিগ্রি কলেজকেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছেন তিনি।

বগুড়ার জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার শিবপুর গ্রামের বর্গাচাষি বায়েজিদ হোসেন ও রহিমা বেগমের এক ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে বিউটি ছোট।

জন্ম থেকে তার দুটি হাত নেই। এ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা হতাশ হলেও ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার প্রতি প্রবল ইচ্ছা ছিল বিউটির।

প্রাথমিক সমাপনী, জুনিয়র সার্টিফিকেট পরীক্ষাতে ভালো ফল করেন তিনি। স্থানীয় একটি স্কুল থেকে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষাতে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। এর পর উচ্চশিক্ষার আশায় দুপচাঁচিয়া মহিলা ডিগ্রি কলেজে ভর্তি হন।

কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, বিউটি আকতার ৯ নম্বর কক্ষে অন্য শিক্ষার্থীদের পাশেই বেঞ্চের ওপর বসে ডান পায়ের আঙুল দিয়ে লিখে পরীক্ষা দিচ্ছেন।

কেন্দ্র সচিব ও জাহানারা কামরুজ্জামান ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মজিদ জানান, জন্ম থেকে বিউটি আকতারের দুটি হাত নেই। প্রতিবন্ধী হিসেবে তাকে বাড়তি সময় দিতে চাইলে সে তা গ্রহণ করেননি। সাধারণ শিক্ষার্থীর মতো পরীক্ষা দিচ্ছে। তার হাতের লেখাও সুন্দর।

মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ শামসুল হক আকন্দ জানান, বিউটি আকতার খুব মেধাবী ছাত্রী। নিয়মিত ক্লাস করে। ক্লাস পরীক্ষার ফল ছিল সন্তোষজনক।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com