২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৩ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

ফিলিস্তিনের ওমরাগামী যাত্রীদের ফেরত পাঠালো মিসর

পাথেয় রিপোর্ট : চার বছর পর অনুমতি পাওয়া ফিলিস্তিনের ওমরাগামী যাত্রীদের গাজায় ফেরত পাঠিয়েছে মিসর। জানা যায়, ওমরার উদ্দেশ্যে সৌদিগামী ফিলিস্তিনিদের আটকে দিয়েছে মিসর। চার বছর পর অনুমতি পাওয়া ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ওমরাগামী যাত্রীদের গাজায় ফেরত পাঠিয়েছে দেশটি।

এর আগে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার বাসিন্দাদের চার বছর পর হজ করতে যাওয়ার সুযোগ দেয় সৌদি সরকার। প্রাথমিকভাবে সৌদি আরব যে ৮০০ ফিলিস্তিনিকে হজের অনুমতি দিয়েছে, তাদেরই ১৫ জন প্রথম দফায় রোববার ওমরার উদ্দেশ্যে মিসর হয়ে সৌদি যাওয়ার কথা জানিয়েছিল বার্তা সংস্থা আনাদলু।

মিসরের রাফা সীমান্ত দিয়ে গাজা থেকে এ ১৫ জন ফিলিস্তিনি ওমরা পালন করতে সৌদি যাওয়ার পথে মিসর সরকার তাদের ফিরিয়ে দিয়েছে বলে জানায় দি প্যালেস্টাইন ইনফরমেশন সেন্টার। ফিলিস্তিনের হজ-ওমরা অথরিটির চেয়ারম্যান ইয়াজ আবু বকর জানান, মিসর সরকার ১৫ জন ফিলিস্তিনি ওমরাগামী যাত্রীকে সৌদি যাওয়ার পথে আটকে দিয়েছে।

ইয়াজ আবু বকরের বরাতে দ্যা প্যালেস্টাইন ইনফরমেশন সেন্টার জানায়, রাফা সীমান্ত দিয়ে ওমরাগামীরা কায়রো যাওয়ার পথে তাদেরকে বাস থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। এ সময় তারা সৌদি যেতে পারবে না বলে জানায় মিসর কর্তৃপক্ষ।

এর আগে সৌদি সরকারের অনুমতিক্রমে রোববার (৩ মার্চ) গাজা থেকে ১৫ ফিলিস্তিনি ওমরার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, ইসরাইল ১০ বছর ধরে গাজা অবরোধ করে রেধেছে। ২০১৪ সাল থেকে ইসরাইলের চাপে মিসরের রাফা সীমান্তও বন্ধ করে দেয়া হলে পুরোপুরি অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে গাজার বাসিন্দারা। এরপর থেকে তারা হজ-ওমরা করতে পারছিল না।

ফিলিস্তিনের ধর্মমন্ত্রী ইয়ুসুফ ইদেইস গত মাসে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, অবরুদ্ধ গাজার বাসিন্দারা হজে খুব শিগগিরই যেতে পারবেন। এরপর গত রোববার থেকে ফিলিস্তিনিদের ওমরার যাওয়ার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে এ বছর সৌদি আরব ৮০০ ফিলিস্তিনিকে হজের অনুমতি দিয়েছে। কিন্তু সৌদিগামী প্রথম বহরই বাধার মুখে পড়েছে মিসরে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com