১৬ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১২ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

বেড়েই চলেছে ইউরোপ-তুরস্কের তিক্ততা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ● বেড়েই চলেছে রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের সঙ্গে সুইডেন ও নেদারল্যান্ডসের তিক্ততা। প্রবাসী তুর্কি নাগরিকদের মধ্যে তুরস্কে অনুষ্ঠেয় এক গণভোটের প্রচারণাকে কেন্দ্র করে তুরস্কের সঙ্গে সুইডেন ও নেদারল্যান্ডসের মধ্যে এই তিক্ততার সূত্রপাত ঘটেছে। এই গণভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার মূল কারণ হলো, প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের ক্ষমতা বাড়ানো। এরদোয়ানের পক্ষে প্রচারণার জন্যে সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে যে হল ঘরটি ভাড়া করা হয়েছিলো সেটির অনুমতি তার মালিক প্রত্যাহার করে নিয়েছে। সুইডেনে বসবাসকারী তুর্কি-বিরোধী নেতারা বলছেন, এই প্রচারণা খুবই উস্কানিমূলক। এর আগে তুরস্কের আরো দুজন মন্ত্রীকে নেদারল্যান্ডসে প্রচারণার অনুমতি না দেওয়ায় ওই দেশটির সাথেও বিরোধের সৃষ্টি হয়।

তুরস্কে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যে সংবিধান সংশোধনে গণভোটের আয়োজন করেছে এরদোয়ান সরকার। এই প্রস্তাবের পক্ষে প্রবাসী তুর্কিদের ভোট জোগাড়ে সরকার ইউরোপের দেশগুলোতে প্রচারণার উদ্যোগ নিয়েছে। কিন্তু তাতে রাজি হচ্ছে ইউরোপের একের পর এক দেশ। আর এ নিয়ে এই দেশগুলোর সাথে তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়েছে এরদোয়ান সরকারের।

নেদারল্যান্ডসের সাথে পরিস্থিতি এতটাই তিক্ত হয়ে পড়েছে যে ইস্তাম্বুলে সরকার সমর্থকরা নেদারল্যান্ডসের কনসুলেট ভবনে ডাচ পতাকা খুলে ফেলে তুরস্কের পতাকা উড়িয়ে দেয়। এরদোয়ান হুঁশিয়ার করে বলেছেন, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিনষ্ট করার জন্য নেদারল্যান্ডসকে চড়া মূল্য দিতে হবে। বিবিসি।

patheo24/mr

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com