মুম্বাইয়ের দিকে ২০ হাজার কৃষকের বিক্ষোভ মিছিল

মুম্বাইয়ের দিকে ২০ হাজার কৃষকের বিক্ষোভ মিছিল

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ভারতের মহারাষ্ট্রের হাজার হাজার কৃষক পায়ে হেঁটে রাজধানী মুম্বাইয়ের দিকে এক পদযাত্রা শুরু করেছেন। তাদের দাবি, পেঁয়াজ চাষ করে তাদের যে বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে সরকার অনুদান দিয়ে সেই ক্ষতি পূরণ করুক।

ইতিমধ্যেই এই মিছিলে প্রায় ২০ হাজার কৃষক যোগ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিবিসি। স্থানীয় সময় গত সোমবার নাসিক শহর থেকে মিছিলটি শুরু হয়।

বিবিসি আরো জানিয়েছে, মিছিল যত মুম্বাইয়ের দিকে এগোবে এতে কৃষকের সংখ্যা ততই বাড়তে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। কৃষকদের এই মিছিলটি সংগঠিত করছে সিপিআইএম দলের কৃষক সংগঠন ‘সারা ভারত কৃষক সভা।’ ২০১৮ সালেও এরকমই একটি মিছিল মুম্বাইতে গিয়েছিল।

মিছিলে হাঁটার পথেই সারা ভারত কৃষক সভার রাজ্য সভাপতি উমেশ দেশমুখ বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, ‘সরকারের কাছে আমাদের দাবিগুলো খুব স্পষ্ট। এ বছর পেঁয়াজ চাষ করে উত্তর মহারাষ্ট্রের হাজার হাজার কৃষক বিপুল পরিমাণ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। কুইন্টাল (একশো কেজি) প্রতি মাত্র ৭০০ টাকা করে পাওয়া যাচ্ছে, যা উৎপাদন খরচের অর্ধেক। সরকার সর্বনিম্ন সংগ্রহ মূল্য ২,০০০ টাকা কুইন্টালপ্রতি নির্দিষ্ট করুক, যার মধ্যে অনুদান হিসাবে দেওয়া হোক ৫০০/৬০০ টাকা করে।’

ফসলের ক্ষতি হলে বীমার মাধ্যমে ক্ষতিপূরণ করা, বিদ্যুতের বিল আর কৃষি ঋণ মওকুফ করাসহ আরো একাধিক দাবি নিয়ে কৃষকরা মিছিলে যোগ দিয়েছেন। ওই মিছিলে পেঁয়াজ চাষীসহ, দুধ উৎপাদনকারী, সয়াবিন, তুলা এবং ডাল-চাষীরাও আছেন বলে জানা গেছে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে এ বছর কৃষকরা ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। ক্ষতির পরিমাণ কমাতে তারা ক্ষেতেই ফসল নষ্ট করে দিচ্ছেন। মহারাষ্ট্রের একজন পেঁয়াজ চাষী কৃষ্ণ ডোংরে, সে ক্ষেতের ১৫ হাজার কেজি পেঁয়াজ পুড়িয়ে ফেলেছেন। আবার আরেক পেঁয়াজ-চাষী রাজেন্দ্র বোঢ়গুঢ়ে ট্র্যাক্টর চালিয়ে তিন একর জমির পেঁয়াজ নষ্ট করে দিয়েছেন।

বিবিসি বাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এক পেঁয়াজ চাষী জানিয়েছেন,সম্প্রতি জানিয়েছিলেন, ‘তিন একর জমিতে পেঁয়াজ চাষ করেছিলাম এই মওসুমে। পেঁয়াজ আড়ৎদারের কাছে পৌঁছে দেওয়া পর্যন্ত এক লাখ দশ হাজার টাকা মতো খরচ হয় প্রতি একরের ফসলে। এক একরে ১৫০ কুইন্টাল তো হয়, ভাল ফলন হলে ১৭০-৮০ কুইন্টালও হয়। সেই হিসাব যদি করেন, তাহলে এক একরের ফসল থেকে গড়ে আমি দাম পাচ্ছি ৫০,০০০ থেকে ৬০,০০০ টাকা, যা আমার খরচের অর্ধেক। সেই ফসল আড়তে পৌঁছে দেওয়ার জন্য আরো বাড়তি খরচ করে লোকসানের বোঝা বাড়াবো নাকি?’

এ বছর ভারতে পেঁয়াজের ফলন ভালো হওয়াতে দাম মুখ থুবড়ে পড়েছে।

  • সূত্র: বিবিসি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *