২৮শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৬শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

যে পাঁচ কাজে ধ্বংস সুনিশ্চিত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : মানুষের জন্য সুন্দর এক জীবন ব্যবস্থার নাম ইসলাম। নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মানুষের কল্যাণে অনেক উপদেশ ও দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। আবার অনেক কাজ করতে নিষেধ করেছেন। যে কাজগুলো মানুষের জন্য ধ্বংস বয়ে আনে। প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এক হাদিস এমনই পাঁচটি কাজের ব্যাপারে নিষেধ করেছেন। যা মানুষকে ধ্বংস করে দেয়। তাহলো-

হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যখন আমার উম্মত পাঁচটি বিষয়কে হালাল করে নেবে, তখন তাদের উপর ধ্বংস নেমে আসবে। তাহলো-

১. যখন পরস্পরে অভিশাপ ব্যাপক হবে। অর্থাৎ একে অপরকে বেশি বেশি অভিশাপ দেবে। কেউ কারো প্রতি দয়া ও সহমর্মিতা দেখাবে না। বরং অভিশাপ দেওয়াকে নিজেদের জন্য হালাল মনে করবে।

২. যখন তারা মদ্যপান করবে। মদ ও মাদকের ব্যবহার বেড়ে যাবে। মদ ও মাদকে জড়িয়ে পড়বে মানুষ। মদ ও মাদককে হালাল মনে করবে।

৩. রেশমের কাপড় পরবে। যাদের রেশমি পোষাক পরা নিষিদ্ধ তারা এ পোষাককে হালাল মনে করবে।

৪. গায়িকা-নর্তকী গ্রহণ করবে। নিজেদের জন্য গায়িকা বা নর্তকী হওয়াকে হালাল মনে করবে কিংবা গায়িকা/নর্তকীদের সঙ্গে জীবন-যাপনকে হালাল মনে করবে।

৫. নারী-নারীতে ও পুরুষ-পুরুষে সমকামিতা করবে।’ (বায়হাকি, তাবারানি, তারগিব) এক নারী আরেক নারীকে এবং এক পুরুষ আরেক পুরুষকে বিয়ে করা হালাল মনে করবে। সমকামিতাকে নিজেদের জন্য বৈধ মনে করবে। তাদের জন্য ধ্বংস সুনশ্চিত।

সুতরাং মানুষের উচিত, উল্লেখিত পাঁচটি কাজ থেকে নিজেদর বিরত রাখা। এগুলোকে নিজেদের জন্য হালাল মনে না করা। কারণ এগুলো মোটেই হালাল নয় বরং মুমিন মুসলমানের জন্য এ কাজগুলো হারাম এবং কবিরা গুনাহ।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে উল্লেখিত পাঁচটি কাজ থেকে নিজেদের হেফাজত করার তাওফিক দান করুন। হাদিসে নির্দেশিত বিষয়গুলো পরিত্যাগ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com