৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২০শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

উগ্রপন্থি পথচ্যুতরা নবীপ্রেম ছিনিয়ে নিতে মরিয়া

উগ্রপন্থি পথচ্যুতরা নবীপ্রেম ছিনিয়ে নিতে মরিয়া

প্রেমের নবী ও আমাদের জীবন

মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান : মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একবার তাঁর সাহাবাদের জিজ্ঞেস করলেন, তোমরা কি বলতে পার। আল্লাহর কাছে সব চেয়ে প্রিয় আমল কোনটি? একজন উত্তরে বললো, নামাজ ও জাকাত। নবীজী বললেন, সঠিক নয়। আরেকজন বলল, জিহাদ। নবীজী এবারও হেসে মাথা নাড়লেন। প্রত্যেকে একেকটি আমলের কথা বললে নবীজী সবাইকেই রদ করে দিয়ে বললেন, জেনে রেখ, সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ বিষয় হচ্ছে, নিঃস্বার্থ ভালবাসা। ভালবাসার চেয়ে উত্তম কোন আমল হতে পারে না। আল্লাহর কাছে সব চেয়ে প্রিয় আমল আল্লাহর জন্য ভালবাসা এবং আল্লাহর জন্য কারো প্রতি বিরূপতা। (মুসনাদে আহমাদ, হজরত আবু যর গিফারী রা. থেকে বর্ণিত)

আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা মানুষকে ভালবাসেন। মানুষের প্রতি তাঁর সীমাহীন ভালবাসার কারণেই তো যুগে যুগে নবীদের পাঠিয়েছেন। তাঁর রাব্বুল আলামীন নামের ভেতর রয়েছে মহৎ প্রেমের প্রমাণ। তিনি নিজে যেমন রাহমান রাহীম; ভালবাসার রহমদিল ইনসান। তিনি ভালবাসেন মানুষের কোমল মন। পছন্দ করেন মমতার ছোঁয়া। তাই তো তিনি আখেরী পয়গম্বরকে প্রেরণ করেছেন মমত্বের প্রতীক করে। প্রেম ও ভালবাসায় পূর্ণ করেছেন তিনি নবীজীর অন্তর। নবীজীর মত এত ভালবাসা পৃথিবীর আর কারও বুকে ছিল না। মানুষের জন্য আমাদের প্রিয় নবী সারা জীবন ভালবাসা রেখেছেন তার হৃদয়ে। রাতের আঁধারে তিনি কাঁদতেন মানুষের কল্যাণের জন্য। উম্মতি উম্মতি বলে খোদার দরবারে ফরিয়াদ জানাতেন। জন্ম থেকে নিয়ে ওফাত পর্যন্ত নবীজীর পুরো জীবনটাই ছিল কোমল প্রেমের সর্বোচ্চ নিদর্শন। মহান রাব্বুল আলামীন আল কুরআনে ঘোষণা করেছেন, আমি তো আপনাকে প্রেরণ করেছি রাহমাতুললিল আলামীন রূপে। বিশ্বাবাসীর জন্য পরম মমতা ও ভালবাসার প্রকাশ হিসেবে। (সুরা আম্বিয়া আয়াত:)

মানুষ, জীব জানোয়ার, এমনকি গাছের পাতা এবং সমস্ত সৃষ্টির জন্যই তিনি রহমত ছিলেন। তাঁর রহমতের ছোঁয়ায় সারা পৃথিবীর সবকিছুই আজও অভিসিক্ত। তিনি তার সাহাবাদেরকে ভালবাসতে শিখিয়েছেন। সাহাবারা প্রেমের সে শিক্ষাই ছড়িয়ে দিয়েছেন সর্বত্র। হজরত আনাস বলেন, আমি দশ বছর নবীজীর খেদমত করেছি, তিনি কখনওই আমাকে ধমকাননি। কখনও বলেননি, এটা কেন করলে বা এটা কেন করলে না? (বুখারী শরীফ) আরেক সাহাবী বলেন, আমি যখনই নবীজীর দিকে তাকিয়েছি, তখনই তাঁকে দেখেছি পবিত্র হাসিতে তার মুবারক মুখ উজ্জ্বল হয়ে আছে। আমার দিকে তিনি যখন তাকিয়েছেন, প্রেমময় হাসির দ্বারা আমাকে বিমোহিত করেছেন। (শামায়েলে তিরমিযি)

নবীজী হজরত মুআযকে ইয়ামানে পাঠানোর সময় নির্দেশনা দিলেন, দেখ! সহজ করবে, কঠিন করবে না। সুসংবাদ দিবে, ঘৃণা সৃষ্টি করবে না। (মুসলিম শরীফ) সীরাত ও হাদীসের কিতাবসমূহের বিশাল ভার নবীজীর এমন মধুর প্রেমের বাণীতে পূর্ণ হয়ে আছে। প্রিয় উম্মতের জন্য প্রেমের পয়গম্বর রেখে গিয়েছেন প্রেমের মহৎ আদর্শ। আল কুরআনে ইরশাদ হয়েছে, তোমাদের জন্য আল্লাহর রাসূল সা.এর মাঝে রয়েছে উত্তম আদর্শ। (সূরা আহযাব) নবীজীর আদর্শের চেয়ে উত্তম কিছু কি আর হতে পারে? প্রেমের সবকের চেয়ে ভাল কোন তুহফা কি খোদা তালা আমাদের দিয়েছেন? মুমিন মুসলমানের জন্য এর বাইরে গিয়ে কঠোর স্বভাব ধারণের কোন অবকাশ নাই। সূরা তাওবার ১২৮ নং আয়াতে নবীজীর পরিচয় দিতে গিয়ে বলা হয়েছে, ‘অবশ্যই তোমাদের মধ্য থেকেই তোমাদের নিকট একজন মহান রাসূল এসেছেন। তোমাদেরকে যা বিপন্ন করে তা নবীর জন্য ভীষণ কষ্টদায়ক। নবীজী তোমাদের মঙ্গলকামী, প্রেমময় ও পরম দয়ালু এক মহান সত্ত্বা।’ তিরমিযি শরীফের হাদীসে বলা হয়েছে, কোমলতা কোন বস্তুতে থাকলে সেটিকে সৌন্দর্য করে। আর কঠোরতা কোন কিছুতে থাকলে সেটার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে কলঙ্কিত হয়ে যায়। হাজার বছর ধরে আমরা বাঙালি মুসলিমরা প্রিয় নবীজীর আদর্শ বুকে আঁকড়ে ধরে আছি। আবহমানকাল থেকে পদ্মা মেঘনার পবিত্র এই মাটিতে অসাম্প্রদায়িক উদার এক জনগোষ্ঠি পারষ্পরিক সৌভ্রাত্র ও সম্প্রীতির সঙ্গে বসবাস করে আসছে। বর্তমানে কিছু উগ্রপন্থি পথচ্যুত সংঘ আমাদের এই প্রেমের ও ভালবাসার ঐতিহ্য ছিনিয়ে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

বাঙলার প্রকৃতিতে যে নববী প্রেমের বাতাস বয়ে যায়, সেটিকে বদলে ফেলতে চাচ্ছে। আমাদের এক্ষেত্রে সতর্ক থাকা উচিত। সাবধান হওয়া উচিত। সতর্ক দৃষ্টি রাখা আমাদের সবার জন্যই জরুরী। আমাদের বুক থেকে নবীজীর মহব্বতের শিক্ষা যেন কেউ কেড়ে নিতে না পারে। সারা বিশে^ আমাদের কোমলতার যে সুনাম সুখ্যাতি রয়েছে তা যেন কোন মূল্যেই নষ্ট না হয়। আমাদের আগামী প্রজন্মের সুন্দর সুস্থ রুচি যেন কোনভাবেই বিকৃত করতে না পারে। প্রিয় নবীর আদর্শের উপর অটল অবিচল থাকাতেই রয়েছে আমাদের দুনিয়া আখিরাতের সফলতা ও কামিয়াবি।

লেখক : কবি ও ফিকহে ইসলাম বিশেষজ্ঞ

পড়ুন মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান-এর আরও লেখা

ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলে বাঙময় যিনি | ফয়জুল্লাহ আমান

ফয়জুল্লাহ আমান — এর জীবনের গল্প

ফয়জুল্লাহ আমান— এর সুসময়ের অপেক্ষা

 

আরও এ জাতীয় খবর পড়ুন

নবীজীকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে রাস্তায় হাজারো জনতা

অনুভবে নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

নবীজীর মেরাজ তায়েফের কষ্টের শান্তনা পুরস্কার

‘মুসলমানদের ধর্মীয় মূল্যবোধ নষ্ট করতে চায় নবীজীর শত্রুরা’

জাতি গঠনে নবীজীর পথ অনুসরণ করতে চান ইমরান খান

নবীজী বুঝতেন পাখির ভাষা

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com