৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ সনদকে মাস্টার্সের সমমান ঘোষণা

আদিব সৈয়দ ● স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য ও দেওবন্দের আট মূলনীতি অক্ষুণ্ন রেখে কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ ডিগ্রি দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্স (ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবি সাহিত্য) সমমান ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেল কওমি মাদরাসার শিক্ষা। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সারাদেশের কওমি অঙ্গনে এক আনন্দ হিল্লোল ছড়িয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার (১১ এপ্রিল) রাতে গণভবনে ‘কওমি মাদরাসার আলেমগণের সাথে সাক্ষাৎকার’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ ঘোষণা দেন। প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের আমির ও বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া ঢাকা বোর্ডের (বেফাক ঢাকা) সভাপতি আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম ও জাতীফ বেফাকের চেয়ারম্যান আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদসহ কওমি মাদরাসার বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের ঊর্ধ্বতনরা।

কওমি মাদরাসা সনদের স্বীকৃতি ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, প্রজ্ঞাপণের মাধ্যমে এই স্বীকৃতি বাস্তবায়ন করা হবে। দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কওমি মাদরাসার সনদের স্বীকৃতির ফলে এখাতের শিক্ষার্থীদের দেশ-বিদেশে চাকরিসহ উচ্চশিক্ষার সুযোগ সৃষ্টির কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগে যেহেতু স্বীকৃতি ছিলো না ফলে তারা কোনো সুযোগ পেতো না।

শিক্ষা ও বৃটিশবিরোধী আন্দোলনে কওমি মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অবদানের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

কওমি মাদরাসা বোর্ডগুলোর ঐকমত্যের ভিত্তিতে কারিকুলাম প্রণয়ন করা হবে বলেও জানান তিনি।

কোনো ছেলেমেয়ে যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের পথে না যায়, বিপথগামী না হয়, যারা গিয়েছে তারা যেন সুপথে ফিরে আসে এক্ষেত্রে সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

রাত ৮টায় কওমি মাদরাসার আলেমদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ অনুষ্ঠান শুরু হয়। এতে কওমি মাদরাসা শীর্ষ নেতারা ছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের কয়েকশ আলেম অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন শাহ আহমদ শফী।

অনুষ্ঠানে কওমি মাদরাসার স্বতন্ত্র বিভিন্ন বোর্ডের প্রতিনিধি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ মাওলানা আশরাফ আলী, মাওলানা নূর হোসেন কাসেমী, আল্লামা আবদুল হালিম বোখারি, আল্লামা মুফতি রুহুল আমীন, মাওলানা আবদুল বছির মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস,  মাওলানা মুফতি আরশাদ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন।

মঞ্চে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলা্ম নাহিদ, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ আবদুল্লাহ।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com