৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

আল্লাহই মুসলমানদের একমাত্র আশ্রয়স্থল : আল্লামা মাসঊদ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ‘আল্লাহ তাআলাই মুসলমানদের একমাত্র আশ্রয়স্থল। মুসলমানরা আল্লাহ ব্যতিত অন্য কারো আশ্রয় নিলে আল্লাহ তাআলা তা সহ্য করেন না। ইতিহাস সাক্ষী, মুসলমানরা যতবার আল্লাহ ব্যতিত অন্য কিছুর আশ্রয় নিয়েছে, একবারও সফল হতে পারেনি।’

ইকরা বাংলাদেশ জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) জুমার বয়ানে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান, শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম, শাইখুল হাদীস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ এসব কথা বলেন।

আল্লামা মাসঊদ বলেন, ‘আল্লাহ তাআলা বড়, তাঁর গায়রতও বড়। আল্লাহকে মানার পর কোন মুসলমান অন্যের আশ্রয় গ্রহণ করবে, আল্লাহ তা সহ্য করতে পারেন না। তাই পৃথিবীতে অমুসলিমরা অন্যের আশ্রয় নিয়ে সফল হয়ে যায়, কিন্তু মুসলমানরা অন্যের আশ্র‍য়ে সফল হতে পারে না।’

আল্লাহ তাআলা দুনিয়াতে কাফেরদেরকে অবকাশ দেন উল্লেখ করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান বলেন, ‘আল্লাহ তাআলা দুনিয়াতে কাফেরদেরকে ইচ্ছে করেই ঢিল দেন, তাদেরকে বেশি বেশি গুনাহ করার ছাড় দেন। আখিরাতে তাদেরকে দুনিয়ার অপরাধের শাস্তি দিবেন। কিন্তু মুসলমানদের বেলায় আল্লাহ তাআলা বড় কঠোর, মুসলমানরা কোন ভুল করলেই আল্লাহ সাথে সাথে পাকড়াও করেন। দুনিয়াতেই সব গুনাহ মাফ করিয়ে নেন। আল্লাহ বড় মেহেরবান।’

মুসলমানরা আল্লাহকে ভুলে গেছে উল্লেখ করে আল্লামা মাসঊদ বলেন, ‘ভাই, আমাদের একমাত্র আশ্রয় আল্লাহ তাআলা। কিন্তু আফসোস, আজ আমরা মুসলমানরা আল্লাহকে ভুলে দুনিয়ার পিছে পড়ে আছি।’

তিনি বলেন, উসিলা ছাড়া কাজ হয় না, কথাটা সঠিক, কিন্তু আমরা বুঝেছি ভুল। দুনিয়া ‘দারুল ওয়াসিলা’ কথাটাও ঠিক, কিন্তু আমরা এই কথার ভুল অর্থ বুঝেছি। আজ আমরা আল্লাহর ইবাদাত ব্যতিত অন্যসব কিছুর আশ্রয় নিচ্ছি, যা ঠিক না। অথচ আম্বিয়ায়ে কেরাম আল্লাহর ইবাদাত ও জিকিরকে উসিলা বানিয়ে ছিলেন।’

আরও পড়ুন: প্রেরণার বাতিঘর আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

আজ মুসলমানরা নিজেদের কারণে সারা বিশ্বে লাঞ্চিত উল্লেখ করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান বলেন, আজ মুসলমানরা সারা বিশ্বে লাঞ্চিত। মার খাচ্ছে, অথচ মুসলমানদের লাঞ্চিত হবার কথা ছিল না। এর কারণ, মুসলমানরা তাদের মালিক থেকে দূরে সরে গেছে। মালিকবিহীন গরু যেমন কোনো জায়গায় আশ্রয় পায় না, সব জায়গাতেই মার খায়। তেমনিভাবে মুসলমানরা মালিক থেকে দূরে সরে যাওয়ায় সব জায়গাতে তারা লাঞ্চিত হচ্ছে, মার খাচ্ছে।

আল্লাহর দিকে দ্রুত ফিরে আসা আহ্বান জানিয়ে আল্লামা মাসঊদ বলেন, আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে শুধু মুখে ‘আল্লাহুম্মাগ-ফিরলী’ বললেই হবে না। আল্লাহর দিকে ফিরে আসতে হবে। এটাই হবে প্রকৃত মাফ চাওয়া। আর এই কথাটা আমাদের দ্রুত বুঝতে হবে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com