২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং , ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১২ই রজব, ১৪৪২ হিজরী

দুরুদ পাঠ নবীজীকে স্বপ্নে দেখার মাধ্যম : আল্লামা মাসঊদ

দুরুদ পাঠ নবীজীকে স্বপ্নে দেখার মাধ্যম : আল্লামা মাসঊদ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বেশি বেশি দুরুদ পাঠ নবীজী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে স্বপ্নে দেখার সবচেয়ে বড় মাধ্যম বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান, শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম, শাইখুল হাদীস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

তিনি বলেন, প্রত্যেক মুসলমান মনের মধ্যে স্বপ্ন বুনে প্রিয় নবীজীকে স্বপ্ন দেখার। কিন্তু সেই সৌভাগ্য সবার জীবনে ঘটে না নবীজী প্রতি দুরুদ পাঠ না করার কারণে। তবে যে ব্যক্তি নবীজীর প্রতি বেশি বেশি দুরুদ পাঠ করবে, অজুসহকারে পবিত্র হয়ে বিছানায় ঘুমাবে, জীবনে একবার হলেও সে নবীজীকে স্বপ্নে দেখবে।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) রাজধানীর খিলগাঁও ইকরা বাংলাদেশ জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে জুমার বয়ানে মাওলানা সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী রহ. এর খলীফা আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ এসব কথা বলেন।

জুমার দিন দুরুদ শরীফের বিশেষ গুরুত্ব আছে উল্লেখ করে শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম বলেন, নবীজী সা. এর কাছে জুমার দিন উম্মাতে আমলনামা পেশ করা হয় এবং নবীজী তা দেখেন। সওয়াবের পরিমাণ বেশি হলে খুশি হন, গুনাহের পরিমাণ বেশি হলে আফসোস করেন। আর যারা জুমার দিন দুরুদ পাঠ করতে থাকে, তাদের আমলনামা দুরুদ পড়া অবস্থায় নবীজীর কাছে পেশ করা হয়। সেই সাথে দুরুদ সওয়াব তাদের গুনাহগুলো ঢেকে রাখে। তখন নবীজী এই বান্দার উপর খুশি হয়ে তার জন্য দুআ করেন।

নবীপ্রেমের শ্রেষ্ঠ নিদর্শন দুরুদ মন্তব্য করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান বলেন, দরুদ শরীফ গুরুত্বপূর্ণ একটি আমল। এ আমলের মাধ্যমে একসঙ্গে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের সন্তুষ্টি পাওয়া যায়। এটি মুমিনের আত্মার খোরাক এবং প্রিয় তাসবিহ। আমাদের পেয়ারে নবীজীকে ভালোবাসার শ্রেষ্ঠ নিদর্শন তাঁর উপর দুরুদ পাঠ করা।

নবীজীর মহব্বতই হাশরের ময়দানে নাজাতের উসিলা হবে উল্লেখ করে মাওলানা সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী রহ.-এর এই খলিফা বলেন, মুমিনের জীবনে নবীজীর প্রতি মহব্বতের গুরুত্ব অপরিসীম। মহব্বতে রাসুল ঈমানের রূহ, নবীজীর ভালোবাসা ছাড়া ঈমানের পূর্ণতা আসে। আর নিছক ভালোবাসাই যথেষ্ট নয়, বরং পার্থিব সমস্ত কিছুর উপর এই ভালোবাসাকে প্রাধান্য দিতে হবে এবং তাঁর আনুগত্যের মাধ্যমে ভালোবাসার প্রকাশ ঘটতে হবে। আর এই ভালোবাসাই হাশরের ময়দানে নাজাতের উসিলা হবে।

আল্লামা মাসঊদ বলেন, আমাদের এই মসজিদে প্রতিদিন এশারের নামাজের পর দুরুদ শরীফের আমল হয়ে থাকে। আমি আপনাদেরকে দুরুদ শরীফের আমলে শরিক হওয়ার আহ্বান জানাই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি
Design & Developed BY ThemesBazar.Com