৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

১৫ শতাংশ ভ্যাটেও দাম বাড়বে না : অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক ● ১৫ শতাংশ ভ্যাট কার্যকর করা হয়েছে। তবে নিত্যপণ্যে ভ্যাট ছাড় দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ৩০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকার বাৎসারিক লেনদেন ছাড় দেয়া হয়েছে। তাই জিনিসপত্রের দাম বাড়ার সুযোগ নেই। বললেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের পর শুক্রবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এ প্রস্তাব করেন। তিনি নতুন অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করেন। আর প্রস্তাব বাজেট নিয়েই শুক্রবার এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্ন-উত্তর পর্বে অংশ নেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এবং অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান। অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্যাংকে বাড়তি লাখ টাকা যাদের আছে, তাদের বাড়তি আবগেরি শুল্ক দেয়ার ক্ষমতা আছে। তাদের প্রেক্ষিতে এ বাড়তি শুল্ক বহনে তারা সক্ষম। তবে অনেকে বলছে আবগেরি শুল্ক বাড়ায় টাকা পাচার হবে, তবে তা হওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই। অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে বৈদেশিক সাহায্যের পরিমাণ গত বছরের তুলনায় বেশি রেখেছি। পাইপলাইনেও অনেক বেশি টাকা আছে। আমরা এ টাকার সদ্বব্যবহার করতে পারি না। টোটাল টাকা ব্যবহার করতে পারছি না।

এরপরও বিদেশি সাহায্যের পরিমাণ বেশি রেখেছি। কারণ, এর মধ্য দিয়েই এই টাকা ব্যবহারের সক্ষমতা আমরা অর্জন করবো। অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, রপ্তানি কমলেও ক্ষেত্র বাড়ছে। রেমিটেন্স কমেছে। তবে আমাদের ধারণা রেমিটেন্স কমেনি। অন্য উপায়ে দেশে রেমিটেন্স আসছে। আমরা সে পথ বন্ধ করে দিচ্ছি। আগামী ২ মাসের মধ্যে সঞ্চয়পত্রের হার আবার নির্ধারণ করা হবে। তবে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ভ্যাট কমবে না। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, প্রস্তাবিত বাজেটের প্রভাবে চালের দাম বাড়েনি। হাওর অঞ্চলে আগাম বন্যায় বোরো ফসল তলিয়ে যাওয়ায় চালের বাজারে এর প্রভাব পড়েছে। তবে চালের দাম দ্রুত স্বাভাবিক হয়ে যাবে। চাল আমদানির মাধ্যমে বাজার ঠিক করা হবে। আবদুল মুহিত বলেছেন, গ্যাসের দাম আমি কিছুই বাড়াইনি। যা আছে তাই রয়েছে। আমি বলেছি গ্যাসের দাম ২০১৮ সালে বাড়বে। আমি শুধু সাবধান করে দিয়েছি সে ব্যাপারে। দামের ব্যাপারে কোনো পরিবর্তন আমি করিনি। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, ইআরডি সচিব কাজী শফিকুল আজম এবং পরিকল্পনা বিভাগের সচিব জিয়াউল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মসিউর রহমান, মুখ্যসচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম ছাড়াও ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত আছেন। এদিকে প্রস্তাবিত বাজেটে মোট রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ২ লাখ ৮৭ হাজার ৯৯১ কোটি টাকা।

এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সূত্রে আয় ধরা হয়েছে ২ লাখ ৪৮ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। এবার বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ৪লাখ ২৬৬ কোটি টাকা। যা গেলো বারের চেয়ে ১৭ শতাংশ বেশি। এছাড়া এনবিআর বহির্ভূত সূত্র থেকে কর রাজস্ব ধরা হয়েছে ৮ হাজার ৬২২ কোটি টাকা। কর বহির্ভূত খাত থেকে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩১ হাজার ১৭৯ কোটি টাকা। অনুন্নয়নসহ ব্যয় ধরা হয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার ২৬২ কোটি টাকা। ঘাটতি দেখানো হয়েছে ১ লাখ ১২ হাজার ২৭৫ কোটি টাকা।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com